সংবাদ শিরোনামঃ
প্রচ্ছদ / বগুড়ার খবর / আদমদীঘিতে ছাগল ফুল গাছ খাওয়ার অপরাধে দুই হাজার টাকা জরিমানা

আদমদীঘিতে ছাগল ফুল গাছ খাওয়ার অপরাধে দুই হাজার টাকা জরিমানা

মো: আবু বকর সিদ্দিক বক্কর,আদমদীঘি (বগুড়া) প্রতিনিধিঃ
বগুড়ার আদমদীঘি উপজেলা পরিষদ চত্বরে ফুল গাছ খাওয়ার অপরাধে ছাগল মালিকের দুই হাজার টাকা জরিমানা করেছে উপজেলা নির্বাহী অফিসার সীমা শারমিন। এতেও ক্ষান্ত না হয়ে ওই ছাগল কে ৫ দিন আটকে রাখার পর বাজারে বিক্রি করার অভিযোগ উঠেছে উপজেলা নির্বাহি অফিসারের বিরুদ্ধে। এতে বিপাকে পড়ে ছাগল মালিক দ্বারে দ্বারে ঘুরছে ছাগল ফেরত পাওয়া আশায়। এমন খবর গণমাধ্যমকর্মীদের কাছে হাউ মাউ করে কেঁদে কেঁদে ঘটনার বর্ণনা দেন ছাগল মালিক সাহারা বেগম (৪৫)। ছাগল মালিক সাহারা বেগম বলেন, ‘এক বছর আগে ছাগলটি ৫ হাজার টাকায় কিনেছি। বর্তমান ওই ছাগলটি ৩ মাসের গাভীন।’
ভুক্তভুগী ছাগলের মালিক সাহারা বেগম গণমাধ্যমকর্মীদের জানায়, ‘আদমদীঘি উপজেলা পরিষদ চত্বরের ডাকবাংলো সংলগ্ন বসবাসরত জিল্লুর রহমানের স্ত্রী সাহারা খাতুন তার সংসার চালাতে মুরগী ও ছাগল পালন করে অতি কষ্টের মধ্যে জীবনযাপন করেন। ছাগলটি গত ১৭ মে দিনের বেলায় উপজেলা পরিষদ চত্বরে ঢুকে ফুল গাছের পাতা খায়। এ সময় ওই ছাগলটি উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নিরাপত্তার্কমীকে দিয়ে আটক করে রাখে।  অনেক খোঁজাখুজির পর উপজেলা চত্বরের ভিতর ছাগলকে বেঁধে রেখে ঘাস খাওয়ানো অবস্থায় দেখা যায় উপজেলা নির্বাহী অফিসারের এক নিরাপত্তাকর্মীকে। এ সময় আমি ছাগলটি নিতে চাইলে  ছাগল দেওয়া যাবে না বলে সাফ জানিয়ে দেয়া হয়। নিরুপায় হয়ে  ৫ দিন ধরে উপজেলা নির্বাহি অফিসারের নিকট ধর্ণা দিয়েও কোন লাভ হয়নি। অবশেষে আমাকে জানানো হয় ফুল গাছের পাতা খাওয়ার অপরাধে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে দুই হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। জরিমানার টাকা দিয়ে ছাগল ছেড়ে নিয়ে যান।’

এদিকে ছাগলের মালিক জরিমানার টাকা পরিশোধ করতে না পারায় উপজেলা নির্বাহী অফিসার গত ২২মে শনিবার ছাগলটি বিক্রি করে দিয়েছেন বলে ভুক্তভোগী সাহারা খাতুন জানান। তিনি আরও জানান, ‘উপজেলা নির্বাহী অফিসারের বাসার গৃহকর্মী মারফত খবর দেয় ছাগলটি ৫ হাজার টাকায় বিক্রি করা হয়েছে বাজারে। জরিমানার ২ হাজার টাকা বাদ দিয়ে ৩ হাজার টাকা যেন এসে নিয়ে যায়।’

এ ব্যাপারে বগুড়া বারের সিনিয়র আইনজীবি এ্যাড.শেখ কুদরত-ই-এলাহী কাজল বলেন, ‘কোন গাছপালা খেলে ছাগল সর্বোচ্চ খোয়ারে দেয়া যেতে পারে। কিন্তু ছাগল আটক রেখে বিক্রি করবে এটা অত্যন্ত অন্যায় কাজ।’

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সাথে মুঠোফোনে কথা বললে তিনি জানান, ‘ফুল গাছ খাওয়ার অপরাধে মালিকের অজান্তে ছাগলকে মোবাইল কোর্টের আওতায় এনে দুই হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।’ তিনি আরোও বলেন, ‘ছাগল বিক্রি করা হয়নি, একজনের জিম্মায় রাখা হয়েছে।’

 

 

Check Also

শাজাহানপুরে বাসের চাকায় পিষ্ট হয়ে সেনা সদস্য নিহত

মোঃ আব্দুল ওয়াদুদ, বগুড়া প্রতিনিধিঃ বগুড়ার শাজাহানপুরে শামীম আহমেদ (৩৬) নামে এক সেনা সদস্য মহাসড়ক …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

5 × 2 =