সংবাদ শিরোনামঃ
প্রচ্ছদ / গাইবান্ধার খবর / গাইবান্ধায় খেলাঘরের জাতীয় শিশু চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত

গাইবান্ধায় খেলাঘরের জাতীয় শিশু চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত

ছাদেকুল ইসলাম রুবেল,গাইবান্ধা প্রতিনিধিঃ ঢাকাস্থ শিশু-কিশোর সংগঠন খেলাঘরের আয়োজনে গাইবান্ধা পৌরপার্কের শহীদ মিনার চত্ত্বরে আজ ২৭ সেপ্টেম্বর শুক্রবার সকালে জেলা পর্যায়ের জাতীয় শিশু চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সংগীত শিল্পী আফরোজা লুপুর সভাপতিত্বে ও মো. মেহেদী হাসানের সঞ্চালনায় অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন গাইবান্ধা পৌর মেয়র শাহ মাসুদ জাহাঙ্গীর কবীর মিলন এবং খেলাঘর কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও জাতীয় শিশু চিত্রাংকন প্রতিযোগিতার যুগ্ম আহবায়ক তাহাজুল ইসলাম ফয়সাল।

জেলা পর্যায়ের এই চিত্রাংকন প্রতিযোগিতায় চারটি গ্রুপে বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শতাধিক শিক্ষার্থী অংশগ্রহন করে। প্রতিটি গ্রুপ থেকে পাঁচজন করে ২০জনকে বিজয়ী হিসেবে বাছাই করা হয়। তারা হলো রোহেদ কুমার, রওনক চৌহান, নাহিয়ান, মাজিরিহা তাওহীদ, নাকিব আল শাহরিয়ার, সোহানুজ্জামান, মেহেরুল হাসান, অরিত্র কুমার, জয়িতা সাহা, হুসনাইয়ান হাসান, সানজিদা রহমান, হাবিবা জান্নাতি, নিশাত ইয়াসমিন, নুসরাত জাহান, জান্নাতুন সানজিদা, বুশরা জাহান, মাজেদুর রহমান, ফাহিম ফয়সাল, মুনতারিমা আক্তার ও সাদিয়া আফরিন। প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহনকারীদের সনদপত্র প্রদান করা হয়। তাহাজুল ইসলাম ফয়সাল বলেন, মননশীল চর্চার মাধ্যমে শিশুর মনকে সৃজনশীল ও সুন্দর করে গড়ে তোলাই এই প্রতিযোগিতার অন্যতম উদ্দেশ্য নিয়ে দেশব্যাপী চলমান প্রতিযোগিতার অংশ হিসেবে গাইবান্ধায় এ প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। আরো জানা যায় যে, সকল জেলা থেকে পুরস্কারপ্রাপ্ত শিশু শিল্পীদের চিত্রকর্ম নিয়ে ঢাকায় পাঁচ দিনব্যাপী খেলাঘর জাতীয় শিশু চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হবে। এ প্রদর্শনীতে স্থান পাওয়া চিত্রকর্ম থেকে বাছাইকৃত চিত্রকর্ম নিয়ে চার রঙের সুদৃশ্য ক্যাটালগ প্রকাশ করা হবে এবং জেলা পযায়ের বিজয়ী ও জাতীয় পর্যায়ের বিজয়ীকে পুরস্কার প্রদান করা হবে। প্রতিযোগিতা শেষে গাইবান্ধায় ঘাঘট খেলাঘর আসর নামে নতুন শাখা গঠন করা হয়। মো. মেহেদী হাসানকে আহবায়ক করে ১৩ সদস্য বিশিষ্ট কমিটিকে শপথ বাক্য পাঠ করান খেলাঘর কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য তাহাজুল ইসলাম ফয়সাল।
উল্লেখ্য যে, শিশু-কিশোরদের অসাম্প্রদায়িক, বিজ্ঞানমনস্ক ও মানবিক বোধসম্পন্ন মানুষ হিসেবে গড়ে তুলতে খেলাঘর নিরলসভাবে কাজ করছে। ১৯৫২ এর ভাষা আন্দোলনের চেতনায় জন্ম নেওয়া খেলাঘর, ’৭১ এ জীবন উৎসর্গকারী শহীদদের রক্তস্নাত মহান মুক্তি সংগ্রামের পথ ধরে হয়ে উঠেছে আজ বাংলাদেশের সর্ববৃহৎ শিশু-কিশোর সংগঠন। শিশুর বাসযোগ্য একটি নিরাপদ বাংলাদেশ বিনির্মানে খেলাঘর পথ চলে।

Check Also

বাবার মৃত্যুর ১৯ দিন পর জন্ম নিলো দুর্ঘটনায় নিহত পরমাণু প্রকৗশলীর দ্বিতীয় সন্তান

মনজুর হাবীব মনজু,গোবিন্দগঞ্জ (গাইবান্ধা) প্রতিনিধি : সাভারে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত পরমাণু শক্তি কমিশনের প্রকৌশলী কাওছার …

Leave a Reply

Your email address will not be published.

fourteen − 9 =