সংবাদ শিরোনামঃ
প্রচ্ছদ / সারাদেশ / দিনে মাটিতে ঘুমায় বিরল নিশাচর ‘রাতচরা’

দিনে মাটিতে ঘুমায় বিরল নিশাচর ‘রাতচরা’

মোফাচ্ছেরুল আল নোমানঃ
বাঁশ বাগানের শীতল ছায়ায় অন্ধকারে চুপ করে বসে থাকে। এতোই ক্যামোফ্লাজ যে চোখের সামনেই থাকবে কিন্তু স্পট করা খুব মুস্কিল। সাধারণত যেখানে অনেক পাতা ঝরে পড়ে, সেখানে বাসা বানায়। ডিমের রং শুকনো পাতার রঙের সঙ্গে মিশে যায়। তাই সহজে কারও চোখে পড়ে না। যে এলাকায় এর বাসা বানায় সে এলাকায় হুমকির মুখে না পড়লে সে এলাকার এরা ত্যাগ করে না।
লম্বা লেজ রাচচড়া | Large tailed nightjar | Caprimulgus macrurus

নাম শুনেই বোঝা যায় রাতের বেলাতে এদের আনাগোনা বেশি। সূর্যাস্তের খানিকটা পরে ঝোপ-জঙ্গলের ভেতর থেকে এদের ‘চউঙ্ক-চউঙ্ক-চউঙ্ক’ সুরে ডাকাডাকি শোনা যায় অনেকটা প্রাইভেট কার এলার্ম লকিং সাউন্ড আওয়াজ করে। এরা আমাদের দেশের স্থায়ী বাসিন্দা। গাঁও গ্রামের ছোটখাট ঝোপঝাড় কিংবা বাঁশবনে এদের বিচরণ বেশি, এর জোড়ায় থাকে।
শহরতলীর নির্জনতাও মুছে গেছে সেই কবে। বনের নির্জনতায় বেঁচে থাকা হাতেগোনা কিছু সংখ্যক রাতচরা, তার অস্তিত্ব আজ হুমকির মুখে। গত ১০/১৫ বছরে এদের সংখ্যা মারাত্মক ভাবে কমে গেছে। গ্রামেগঞ্জে আগে সব সময় বাঁশবন থেকে এই পাখির ডাক শোনা যেতো। এখন শোনা যায় না। এর একটি কারণ— আমরা সব পোকা মেরে ফেলেছি। আজ চোখের সামনের পাখিটি প্রায় বিরল হয়ে গেলো। আগামী ১০ বছরের মধ্যে হয়তো সারাদেশে একটিও দেখতে পাবো না।

এরা মাটিতেই বাসা বানায় এবং মাটিতেই বাচ্চা ফুটায়। বাচ্চা বড় না হউয়া পযন্ত এরা ২/৩ মাস মাটিতেই জীবন ধরন করে, রাতে খাবারের খোজে বাসস্থান ছেড়ে যায় আবার ভোরের নিস্তব্ধতা বিদীর্ণ করে লাল আভা পৃথীবির বুকে পড়ার আগের বাসায় ফিরে আসে। যেহেতু এরা নিশাচর সে কারণে মানুষের শিকারে পরিনত কম হচ্ছে তবে তাদের বাসস্থান, খাদ্য নষ্ট হয়ে যাচ্ছে।
জনবহুল বাংলাদেশে গ্রামে গঞ্জে বসতি গড়ে উঠছে তুমুল পর্যায়ে।
বসত বাড়ির খাদ্য উৎপাদন জ্বালানি হিসেবে ব্যবহার হচ্ছে বন জংগলের গাছ, ঝোপঝাড়ের ঝড়া পাতা যেখানে এদের বসবাসের উপযোগী স্থান।
অনেক যুদ্ধের পড়েও এরা তাদের অস্ত্বিত্ব টিকিয়ে রেখেছিলো, হয়তো তাদের সময় কমে এসেছে তারা ক্লান্ত হয়ে পড়েছে, তৃক্ত হয়ে গিয়েছে পৃথীবির মানুষের প্রতি…

সদয় হোন বন্যা প্রাণী জগতের উপর। তারা বাচলে প্রকৃতি আপনার থাকার উপযুক্ত করে তুলবে। ভালোবাসুন প্রকৃতি, তবেই উদার হবে মন, সুন্দর হবে জীবন।

মোফাচ্ছেরুল আল নোমান
বন্যপ্রাণী ও প্রকৃতিজীবন ফটোগ্রাফার।

Check Also

বগুড়া আঞ্চলিক যুব কেন্দ্রে “বন্যপ্রাণী অপরাধ দমন ও ফরেনসিক ব্যবস্থাপনা” বিষয়ক প্রশিক্ষণ কোর্স এর উদ্বোধন

খবর বিজ্ঞপ্তিঃ ১০ মার্চ বগুড়া আঞ্চলিক যুব কেন্দ্রে বন অধিদপ্তরের বন্যপ্রাণী অপরাধ দমন ইউনিটের আয়োজনে “বন্যপ্রাণী …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

three × four =