সংবাদ শিরোনামঃ
প্রচ্ছদ / বগুড়ার খবর / প্রত্যাশা করে জনগণ উপজেলা চেয়ারম্যান হবে অ্যাড. মিনহাদুজ্জামান লীটন

প্রত্যাশা করে জনগণ উপজেলা চেয়ারম্যান হবে অ্যাড. মিনহাদুজ্জামান লীটন

ইকবাল কবির লেমন,বাঙালি বার্তা ডটকমঃ একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের রেশ কাটতে না কাটতেই সমাগত হয়েছে উপজেলা পরিষদ নির্বাচন। বগুড়ার সোনাতলায় এ নির্বাচনকে সামনে রেখে চায়ের কাপে উঠেছে ঝড়। সবখানেই এখন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের আলোচনা। আর সে আলোচনার কেন্দ্র বিন্দুতে অবস্থান করে নিতে সক্ষম হয়েছেন সোনাতলা উপজেলা আওয়ামী পরিবারের অঘোষিত অভিভাবক, বগুড়া জেলা পরিষদের সদস্য, সোনাতলা বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব মহিলা ডিগ্রী কলেজের অধ্যক্ষ ও সুপ্রীম কোর্টের আইনজীবী অ্যাড. মিনহাদুজ্জামান লীটন।
অ্যাড. মিনহাদুজ্জামান লীটন ছাত্র হিসেবে অধ্যয়নরত অবস্থা থেকেই সোনাতলায় জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর প্রিয় সংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগকে প্রতিষ্ঠিত করতে ব্যাপক পরিশ্রম করেন। মূলত তার পরিশ্রমের কারণেই সোনাতলায় ধীরে ধীরে সংগঠিত হতে থাকে ছাত্রলীগ, যুবলীগ, কৃষকলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, মহিলা আওয়ামী লীগ এমনকি মূল সংগঠন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ। বিএনপির ঘাটি খ্যাত বগুড়ার সোনাতলায় তিনি আওয়ামী লীগ মনোনিত প্রার্থী কৃষিবিদ আব্দুল মান্নানকে নির্বাচিত করতে আওয়ামী লীগসহ সকল সহযোগী সংগঠনে প্রাণ সঞ্চার করেছেন। ১৯৯১ সালে জাতীয় সংসদ নির্বাচন থেকে শুরু করে প্রতিটি জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তিনি আওয়ামী লীগ মনোনিত প্রার্থী জননেতা কৃষিবিদ আব্দুল মান্নানের উত্তরোত্তর ভোট বৃদ্ধিতে আওয়ামী লীগসহ আওয়ামী লীগের সকল সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মীদের নিয়ে ব্যাপক কর্মপ্রয়াস চালান। বর্তমানে সোনাতলায় আওয়ামী লীগের প্রাণভোমরা হিসেবে পরিগণিত হয়েছেন কিন ইমেজের অধিকারী অ্যাড. মিনহাদুজ্জামান লীটন। তিনি জাতির জনক বঙ্গবন্ধুকন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশিত পথে বগুড়া-১ আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য জননেতা আব্দুল মান্নানের প্রত্যক্ষ তত্বাবধানে সোনাতলায় আওয়ামী লীগকে প্রতিষ্ঠার সর্বোচ্চ শিখরে নিয়ে যেতে এখনো দিনরাত পরিশ্রম করে চলেছেন। তাই এলাকার উন্নয়ণকামী জনগণ ও আওয়ামী লীগের অধিকাংশ নেতাকর্মী মনে করে একমাত্র অ্যাড. মিনহাদুজ্জামান লীটনের পক্ষেই সম্ভব উপজেলা পরিষদের গুরু দায়িত্বের পদটি উদ্ধার করে বাঙালি-যমুনা তীরের প্রান্তিক এ জনপদের উন্নয়নের ধারাকে আরো বেগবান করার।
এ ব্যাপারে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক নবীন আনোয়ার কমরেড জানান, ‘বগুড়া-১ আসনের কর্মবীর সংসদ সদস্য জননেতা আব্দুল মান্নান প্রসূত উন্নয়ন কর্মকান্ডে একাত্ম হয়ে জননেতা অ্যাড. মিনহাদুজ্জামান লীটন সোনাতলার সকল উন্নয়নে সচেষ্ট রয়েছেন। আগামী উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে দলীয়ভাবে তাঁকেই মনোনয়ন দেয়া উচিত।’
উপজেলা যুবলীগের সভাপতি ফিদা হাসান খান টিটো জানিয়েছেন, ‘ একমাত্র অ্যাড. মিনহাদুজ্জামান লীটন ভাইয়ের পক্ষেই উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের পদটি উদ্ধার করা সম্ভব। আমরা আশা করি দল তাঁকেই মনোনয়ন দেবে।’
উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহ্বায়ক শাহনেওয়াজ তালুকদার বাবু জানিয়েছেন, ‘আমরা আশা করি অ্যাড. মিনহাদুজ্জামান লীটন দলীয় মনোনয়ন পাবেন ও বিজয়ী হয়ে সোনাতলার ব্যাপক উন্নয়ন কর্মকান্ড তরান্বিত করবেন।’
উপজেলা কৃষকলীগের আহ্বায়ক সাইদুজ্জামান সোহেল জানিয়েছেন, ‘ অ্যাড. মিনহাদুজ্জামান লীটনকে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান হিসেবে নির্বাচিত করতে মুখিয়ে আছে এ এলাকার জনগণ।’
উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক জান্নাতুল ফেরদৌসী রুম্পা জানিয়েছেন, ‘উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে অ্যাড. মিনহাদুজ্জামান লীটনের বিকল্প নেই।’
উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মাহমুদুল হাসান রতনের সাথে যোগাযোগ করে এ বিষয়ে তার মন্তব্য জানতে চাইলে তিনি জানান, সোনাতলায় ছাত্র সমাজের অধিকার আদায়ের সংগ্রামে সবসময় সোচ্চার ছিলেন প্রিয় নেতা অ্যাড. মিনহাদুজ্জামান লীটন। এছাড়াও ছাত্র সমাজের সুখে-দুখে সবসময় পাশে রয়েছেন তিনি। তাই আমরা ছাত্র সমাজের অত্যন্ত আস্থাভাজন অ্যাড. মিনহাদুজ্জামান লীটনকে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হিসেবে চাই।’

Check Also

শ্রমিক কর্মচারী ঐক্য পরিষদ (স্কপ) বগুড়ার স্মারকলিপি পেশ

নারায়ণগঞ্জের রুপগঞ্জ উপজেলার কর্ণগোপে অবস্থিত সজীব গ্রুপের হাসেম ফুডস‘র সেজান জুস কারখানায় গত ৮ জুলাই …

১টি মন্তব্য

  1. শুভ কামনা রইল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

5 × three =