সংবাদ শিরোনামঃ
প্রচ্ছদ / বগুড়ার খবর / বগুড়ায় বাসদ( মার্কসবাদী) অফিসে হামলাকারীদের গ্রেফতার ও ৫ দফা বাস্তায়ন না করলে ৭ ফেব্রুয়ারী ধর্মঘট- সংগ্রাম পরিষদ

বগুড়ায় বাসদ( মার্কসবাদী) অফিসে হামলাকারীদের গ্রেফতার ও ৫ দফা বাস্তায়ন না করলে ৭ ফেব্রুয়ারী ধর্মঘট- সংগ্রাম পরিষদ

খবর বিজ্ঞপ্তিঃ হামলাকরী সন্ত্রাসীদের অবিলম্বে গ্রেফতার এবং সংগ্রাম পরিষদের ৫ দফা দাবি ২৮ জানুয়ারির মধ্যে বাস্তবায়ন না হলে আগামি ৭ ফেব্রুয়ারি বগুড়া শহরে দিনব্যাপী ব্যাটারী চালিত তিন চাকার সকল যানবাহনের ধর্মঘটের ঘোষণা।

অটোরিক্সা- ভ্যান সংগ্রাম পরিষদ এর ন্যয়সঙ্গত আন্দোলনে বাধা ও বাসদ( মার্কসবাদী) পাঠচক্র ফোরাম (সংগ্রাম পরিষদের অস্থায়ী) কার্যালয়ে হামলাকারী সন্ত্রাসীদের গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে মঙ্গলবার (২৬ জানুয়ারি) বেলা ১১টায় সাতমাথায় বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

সংগ্রাম পরিষদের আহবায়ক কবির হোসেন এর সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন- সাধারণ সম্পাদক শ্রমিক নেতা আব্দুল হাই, আমিনুল ইসলাম, মাসুদ পারভেজ, দিলরুবা নূরী, শ্যামল বর্মণ, গণতান্ত্রিক ছাত্র কাউন্সিলের নেতা রাসেল আহমেদ ও অনিমেষ রায়। সংহতি জানিয়ে বক্তব্য রাখেন তেল- গ্যাস বিদ্যুৎ বন্দর রক্ষা বগুড়া জেলা কমিটির আহবায়ক ভাষা সৈনিক মাহফুজুল হক দুলু ও এ্যাডভোকেট সাইফুল ইসলাম পল্টু।

বক্তাগণ বলেন, বগুড়ায় পৌরসভা কর্তৃক অটোরিক্সা-ভ্যান-ইজিবাইক এর ট্রেড লাইসেন্স প্রদান, অটোরিক্সা ভাংচুর, শ্রমিকদের শারীরিক- মানসিক নির্যাতন বন্ধ করা, রাস্তায় মোটরসাইকেল সহ গাড়ি পার্কিং বন্ধ করা, ফুটপাত দখলমুক্ত করা সহ ৫ দফা দাবিতে দীর্ঘদিন ধরে আন্দোলন চালিয়ে আসছে অটোরিক্সা- ভ্যান শ্রমিক ও মালিক সংগ্রাম পরিষদ। এই আন্দোলনে সকল শ্রমিক- জনতা- বিভিন্ন শ্রেনি পেশার মানুষের অব্যাহত সমর্থন বাড়ছে। কিন্তু সরকার দলীয় চাঁদাবাজ, সুবিধাভোগী বাহিনী এই আন্দোলনকে বাধাগ্রস্ত করার জন্য ভয়ভীতি ও প্রশাসনিক হুমকি অব্যাহত রাখেছে। এরই অংশ হিসেবে গত রবিবার (২৪ জানুয়ারি ২০) বাসদ (মার্কসবাদী) পাঠচক্র ফোরামের কার্যালয়ে ঢুকে নেতৃবৃন্দের সভা চলাকালীন সময়ে চিহ্নিত সন্ত্রাসীরা পরিকল্পিতভাবে হামলা চালায়। তারা বাসদ (মার্কসবাদী) পাঠচক্র ফোরামের নেতা এবং অটোরিক্সা-ভ্যান শ্রমিক ও মালিক সংগ্রাম পরিষদের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল হাইকে টেনে হিচড়ে অফিসের বাইরে নিয়ে যায়। এসময় তাকে রক্ষায় এগিয়ে আসা গণতান্ত্রিক ছাত্র কাউন্সিলের নেতা আনন্দ কুমার, রাসেল আহমেদ, হাবিবা নসরিন নারী নেত্রী নূরজাহান রেখা গুরুতর আহত হন।

বক্তাগণ সংগ্রাম পরিষদের ন্যায়সঙ্গ আন্দোলনে বাধা ও নেতা কর্মীদের উপর হামলার নিন্দা ও ক্ষোভ প্রকাশ করেন এবং অবিলম্বে হামলাকারী সন্ত্রাসীদের গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করেন।

শ্রমিক নেতা আমিনুল ইসলাম বলেন, সরকার সারাদেশে শ্রমিকদের জীবিকা কেড়ে নিচ্ছে এবং প্রশাসন ও গুন্ডাবাহিনী দিয়ে শ্রমিকদের ন্যায়সঙ্গত যৌক্তিক আন্দোলনে দমনপীড়ন করছে। দুর্বার আন্দোলনের মধ্যদিয়ে লড়াই করে এই অধিকার আদায় করে নিতে হবে।

সভাপতি কবির হোসেন বলেন, ‘আমরা আমাদের দাবী আদায়ে আন্দোলন অব্যহত রাখব। হামলা করে আন্দোলন বন্ধ করা যাবে না। অবিলম্বে সন্ত্রাসীদেরকে গ্রেফতার করতে হবে।‘ এর মধ্যেই তাদের দাবী মানা না হলে আগামী ৭ ফেব্রুয়ারী বগুড়া শহরে দিনব্যাপী সকল ধরণের ব্যাটারী চালিত যানবাহন ধর্মঘট পালন করবে বলে তিনি ঘোষণা দেন। ধর্মঘট পালনের জন্য শ্রমিক ও মালিকদের প্রতি আহ্বান জানান।

Check Also

শিবগঞ্জ থানার নবাগত ওসি সিরাজুল ইসলাম

কামরুল হাসান,শিবগঞ্জ ( বগুড়া) প্রতিনিধিঃ বগুড়ার শিবগঞ্জ থানায় নবাগত ওসি হিসেবে যোগদান করলেন সিরাজুল ইসলাম …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

15 + eleven =