সংবাদ শিরোনামঃ
প্রচ্ছদ / বগুড়ার খবর / বগুড়া জেলা বিএনপির আহবায়ক কমিটি প্রত্যাখ্যান করে দলীয় কার্যালয়ে তালা ঝুলিয়ে বিক্ষোভ

বগুড়া জেলা বিএনপির আহবায়ক কমিটি প্রত্যাখ্যান করে দলীয় কার্যালয়ে তালা ঝুলিয়ে বিক্ষোভ

মো. আব্দুল ওয়াদুদ, বগুড়া প্রতিনিধি : সদ্য ঘোষিত বগুড়া জেলা বিএনপির আহবায়ক কমিটি প্রত্যাখ্যান করে দলীয় কার্যালয়ে তালা ঝুলিয়ে বিক্ষোভ করেছে বিক্ষুদ্ধ নেতাকর্মীরা। বিক্ষুদ্ধ নেতাকর্মীরা বলেছেন, বুধবার কেন্দ্র ঘোষিত জেলা বিএনপির আহবায়ক সাবেক এমপি জিএম সিরাজের নেতৃত্ব মানি না। অবিলম্বে এই কমিটি বাতিল করে ত্যাগী ও পরীক্ষীতদের নেতুত্বে জেলা কমিটি ঘোষনা করতে হবে। নইলে দলীয় কার্যালয়ের তালা খোলা হবেনা। এসময় তারা দলীয় কার্যালয়ের সামনে আগুন জালিয়ে বিক্ষোভ করেন। বুধবার সন্ধ্যার পর ৪ শতাধিক নেতাকর্মী এতে অংশ নেন। এর আগে জিএম সিরাজের নেতৃত্বে ৩১ সদস্য বিশিষ্ট জেলা বিএনপির আহবায়ক কমিটি ঘোষনা করে কেন্দ্র। বুধবার রাত সাড়ে ৭ টায় দল থেকে অব্যহতি পাওয়া নেতা সাবেক স্বেচ্ছাসেবক দলের জেলা সভাপতি মেহেদী হাসান হিমুর নেতৃত্বে নেতাকর্মীরা জেলা বিএনপির কার্যালয়ের সামনে আসে। এসময় তার সাথে জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক শাহাবুল আলম পিপলু, জেলা জাসাসের সাধারণ সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন পশারী হিরু , বিএনপি নেতা আলীমুর রাজি তরুন ছিলেন। বিএনপির কার্যালয়ে হিমুর নেতৃত্বে তালা লাগিয়ে সামনে বিক্ষোভ করা হয়। এসময় বিএনপি কার্যালয়ের সামনে আগুনও জ্বালিয়ে দেওয়া হয়। বিক্ষোভের পর মেহেদী হাসান হিমু বলেন, আমরা এই অবৈধ কমিটি মানিনা। কমিটি বাতিল না হওয়া পর্যন্ত বিএনপি কার্যালয় তালাবদ্ধ থাকবে। অপরদিকে বর্তমানে আহ্বায়ক কমিটির যুগ্ম আহ্বায়ক ও বগুড়া বারের সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলামের নেতৃত্বে জেলা বিএনপি অফিসের তালা ভেঙ্গে দীর্ঘসময় অবস্থান নেয়। এ সময় উত্তেজনা দেখা দিলে বঞ্চিত গ্রুপ রাত ১২টায় সাবেক এমপি হেলালুজ্জামান তালুকদার লালুর বাসায় হামলা চালানো হয়। এ ঘটনায় দুই গ্রুপের মধ্যে চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে। প্রায় ৮ বছর আগে ২০১১ সালের ৭ এপ্রিল বগুড়া জেলা বিএনপির সম্মেলন হয়। সম্মেলনে সাইফুল ইসলাম ও জয়নাল আবেদীন চাঁনকে যথাক্রমে সভাপতি এবং সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত করে পাঁচ সদস্যের কমিটি গঠন করা হয়। তার প্রায় ৫ মাস পর ২০১২ সালের ২২ জানুয়ারি কেন্দ্র থেকে ১৭২ সদস্য বিশিষ্ট পূর্ণাঙ্গ জেলা কমিটি অনুমোদন দেওয়া হয় এরপর সর্বশেষ গত ২ এপ্রিল প্রতিনিধি সভা আহবান করা হয়। ওই সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী কমিটি পুনর্গঠনের প্রক্রিয়া চুড়ান্ত করতে জেলা বিএনপির নেতৃবৃন্দকে গত ২৫ এপ্রিল ঢাকায় বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে ডাকা হয়।

Check Also

সোনাতলায় ভাসমান অবস্থায় পাওয়া গেল নবজাতকের লাশ

ইকবাল কবির লেমনঃ বগুড়ার সোনাতলায় মন্ডমালা কালিমন্দির সংলগ্ন বেইলি ব্রিজের নিচে ভাসমান অবস্থায় পাওয়া গেছে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

thirteen + nineteen =