সংবাদ শিরোনামঃ
প্রচ্ছদ / বগুড়ার খবর / বগুড়া-১ আসনের উপনির্বাচনঃ প্রার্থীদের মুখে উন্নয়নের বাণী

বগুড়া-১ আসনের উপনির্বাচনঃ প্রার্থীদের মুখে উন্নয়নের বাণী

মাহমুদুল হাসান মুনজু, সারিয়াকান্দি (বগুড়া) প্রতিনিধিঃ বগুড়া-১ আসনের উপ-নির্বাচনের আগামী ২৯ মার্চ । ১৮ জানুয়ারী সাংসদ আব্দুল মান্নানের মৃত্যুতে পদটি শূন্য হয় । উপ নির্বাচনে ৬ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন । তারা হলেন, আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী সাংসদ আব্দুল মান্নানের সহধর্মীনি ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাহাদারা মান্নান, বিএনপি প্রার্থী বগুড়া জেলা বিএনপির সহসভাপতি একেএম আহসানুল তৈয়ব জাকির, জাতীয় পার্টির প্রাথী অধ্যক্ষ মোকছেদুল আলম, প্রগতিশীল গণতান্ত্রিক পার্টির মো. রনি, খেলাফত আন্দোলনের প্রার্থী প্রভাষক নজরুল ইসলাম ও সতন্ত্রপ্রার্থী ইয়াসির রহমতুল্লাহ ইন্তাজ । সকল প্রার্থী মাঠে নির্বাচনী প্রচারণা চালাচ্ছেন এবং জনগণকে নানা প্রতিশ্রুতি দিচ্ছেন ।
উপজেলা নির্বাচন অফিস সূত্রে জানাগেছে, সারিয়াকান্দি উপজেলার একটি পৌরসভা ও বার টি ইউনিয়নে ভোটার সংখ্যা ১ লাখ ৭৭ হাজার ৩৫২ জন এবং সোনাতলা উপজেলার একটি পৌরসভা ও সাতটি ইউনিয়নে ভোটার সংখ্যা ১ লাখ ৫৩ হাজার ৫৬৬ জন। মোট ভোটার সংখ্যা ৩ লাখ ৩০ হাজার ৯১৮ জন ভোটার উপনির্বাচনে তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবে ।
বিগত নির্বাচনে যমুনা নদী বিধ্বস্ত দুটি উপজেলা বিএনপি, জাতীয়পার্টি ও আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছিল । টানা তিনবার আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য আব্দুল মান্নান নির্বাচিত হওয়ার পর এলাকায় ব্যাপক উন্নয়নমূলক কাজ বাস্তবায়ন করেছিল । উন্নয়নের ধারাবাহিকতা রক্ষায় এবারের উপনির্বাচনে নৌকার প্রার্থী সাংসদ আব্দুল মান্নানের স্ত্রী সাহাদারা মান্নানের পক্ষে কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সংগঠনের কেন্দ্রীয় ও স্থানীয় নেতাকর্মীরা ভোট প্রার্থনা করে গণসংযোগ করছেন। গতকাল রবিবার রাত সাড়ে ৮টায় সারিয়াকান্দি পাবলিক মাঠের সামনে পথ সমাবেশে নৌকায় ভোট চেয়ে পোস্টার বিলি করেন কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক ।
সাহাদারা মান্নান জানান, সাংসদ আব্দুল মান্নান সবসময় এলাকার উন্নয়ন নিয়ে ব্যস্ত থাকতেন । সুখে দুথে মানুষের পাশে থাকতেন। তার মতো দুটি উপজেলায় আমিও মানুষের সুখে দুখে পাশে থাকবো। আব্দুল মান্নানের গৃহিত উন্নয়ন পরিকল্পনা বাস্তবায়নের জন্য আমি আপ্রান চেষ্টা করবো।
বিএনপির প্রাথী এ.কে.এম আহসান তৈয়ব জাকির বলেন, উন্নয়ন হলো সরকারের ধারাবাহিকতা । আমি নির্বাচিত হলে, চলমান উন্নয়ন কর্মকান্ড অব্যাহত থাকবে। সারিয়াকান্দি-সোনাতলা যেহেতু যমুনা ভাঙন এলাকা বিশেষ করে চর এলাকায় অনেক উন্নয়ন কর্মকান্ডে সুযোগ রয়েছে। সেক্ষেত্রে দেশি-বিদেশি এনজিওগুলোর সাহায্য নিয়ে বেকার মানুষের কর্ম সংস্থানের ব্যবস্থা করবো ।
জাতীয়পার্টি মনোনীত প্রার্থী মোকছেদুল আলম বলেন, জাতীয় পার্টি ক্ষমতায় থাকাকালীন এ এলাকায় অনেক শিক্ষা প্রতিষ্টান সরকারি করন সহ ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে । আমি দীর্ঘদিন শিক্ষকতা পেশায় ছিলাম। শিক্ষার উন্নয়নকে আমি বেশি প্রাধান্য দিবো। আমি নির্বাচিত হলে এলাকায় একটি বিশ্ব বিদ্যালয় স্থাপনের দাবী জানাবো। যমুনার ভাঙনরোধে স্থায়ী ব্যবস্থা গ্রহন করবো।
প্রগতিশীল গণতান্ত্রিক পার্টির প্রার্থী মো. রনি বলেন, দুটি উপজেলাকে দুর্নীতি ও বেকারমুক্ত করার জন্য বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কর্মকান্ড হাতে নেওয়া হবে। যমুনা নদীর দুর্গম চরাঞ্চল মানুষকে স্বাস্থসেবা পৌছে দেওয়া হবে। বিশেষ কওে চরাঞ্চলের মূমূর্ষ রোগীদের দ্রæত হাসপাতাল পৌছাতে নৌ এম্বুলেন্সের ব্যবস্থা করবো ।
সতন্ত্র প্রার্থী মো. ইয়াসির রহমতুল্লাহ ইন্তাজ বলেছেন, প্রযুক্তির ব্যাপকতা ছড়িয়ে দিয়ে তরুনদের কর্মসংস্থানের সৃষ্টি করবো। প্রতিহিংসার রাজনীতি মুক্ত করে সাম্প্রদায়িক শ্রদ্ধার রাজনীতি প্রতিষ্ঠা করবো ।
সারিয়াকান্দি থানার ওসি আল আমিন জানান, এবারের উপ নির্বাচন সুষ্ঠুভাবে পরিচালনার জন্য পুলিশ সচেষ্ট রয়েছে । সরকারীদল বিরোধী দলের প্রার্থী উৎসবমুখর পরিবেশে ভোটের প্রচারণা চালাচ্ছেন । কোথাও কোন অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি ।

Check Also

শিবগঞ্জে আন্তঃ জেলা ট্রাক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়ন শাখার অফিস উদ্বোধন

কামরুল হাসান, শিবগঞ্জ (বগুড়া) প্রতিনিধিঃ বগুড়া শিবগঞ্জে আন্তঃ জেলা ট্রাক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়ন শিবগঞ্জ হাট …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

15 − 7 =