সংবাদ শিরোনামঃ
প্রচ্ছদ / ফিচার সংবাদ / বাঙালি নদীতে দড়ি বেঁয়ে চলা খেয়া

বাঙালি নদীতে দড়ি বেঁয়ে চলা খেয়া

ইকবাল কবির লেমন: বগুড়ার ছোট্ট উপজেলা সোনাতলার নান্দনিক এক নদী বাঙালি। শস্য-শ্যামলিয়ায় ভরা সোনাতলার বুক চিরে এঁকেবেঁকে নদীটি চলে গেছে তার কাক্সিক্ষত গন্তব্যে। এক সময়ের প্রমত্তা,বর্তমানে শীর্ণ নদীটির দু’পাড়ের মানুষের মেলবন্ধনের জন্য গুরুত্বপূর্ণ দু’এক জায়গায় নির্মিত হয়েছে সেতু। কিন্তু এমন কিছু জায়গা রয়েছে যেখানে সেতু স্থাপন সম্ভব নয়, কিন্তু প্রয়োজনীয়তা রয়েছে এপাড়ের মানুষের ওপাড়ে যাবার। বাঙালি নদী তীরের তেমনি দু’টি স্থান সোনাতলা সদর ইউনিয়নের চরমধুপুর ও মধুপুর ইউনিয়নের মধুপুর গ্রাম। নিত্য প্রয়োজনে এপাড়ের মানুষের সাথে ওপাড়ের মানুষের যোগাযোগের জন্য এখানে রয়েছে একটি খেয়া। বগুড়া-১ আসনের প্রয়াত সংসদ সদস্য আব্দুল মান্নানের বদান্যতায় এ খেয়াটি দেয়া হয়েছিল। এ খেয়ায় নেই কোন নির্দিষ্ট মাঝি। নদীটির একপ্রান্ত চরমধুপুরে এবং অপর প্রান্ত মধুপুরে দুইটি বাঁশ পুতে লাগানো হয়েছে দড়ি। আর সেই দড়ি বেঁয়ে সাবলিলভাবে প্রতিদিন খেয়া নিয়ে এপাড় থেকে ওপাড়ে যাচ্ছে নারী-পুরুষ, আবাল বৃদ্ধ বণিতা। দড়ি বেঁয়ে এপাড় ওপাড় যাওয়ার সে মনোহর দৃশ্য যে কাউকেই আকৃষ্ট করবে নদী তীরে কিছু সময় বসতে।
দড়ি বেঁয়ে খেয়া পার হওয়ার সময় কথা হয় গৃহবধূ হাওয়া বেগমের সাথে। তিনি জানান, ‘এ খেয়া নিজেরা পার করতেই আমরা স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করি। ছোট বেলা থেকেই এমন খেয়া পারাপারে আমরা অভ্যস্ত।’
স্থানীয় সমাজসেবী ছাইফুল ইসলাম জানান, ‘দড়ি দিয়ে টেনে এপাড় থেকে ওপাড়ে যাওয়ার এ খেয়াটি প্রতিদিন শত শত মানুষ ব্যবহার করছে ও উপকৃত হচ্ছে।’
সোনাতলা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাড.মিনহাদুজ্জামান লীটন জানিয়েছেন, ‘ওই অঞ্চলের মানুষের যাতায়াতের সুবিধার জন্য বাঙালি নদীর ওপর একটি সেতু রয়েছে। কিন্তু সেতুটি একটু দূরে হওয়ায় হরিখালী হাটের সাথে সদর ইউনিয়নের চরমধুপুর গ্রামের মানুষের দ্রুত যোগাযোগের জন্য প্রয়াত সংসদ সদস্য আব্দুল মান্নান খেয়াটি দিয়েছিলেন, যে খেয়াটি দিয়ে মানুষ সাবলিলভাবে এপাড় থেকে ওপাড়ে যাতায়াত করছে।’

Check Also

বাবুই পাখি —মোঃ মামুন উল হাসান শাওন

বাংলার প্রথিতযশা কবি “রজনীকান্ত সেন” এর স্বাধীনতার সুখ কবিতাটি আমাদের সবারই জানা। যেখানে কবি বাবুইপাখি …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

17 − 3 =