সংবাদ শিরোনামঃ
প্রচ্ছদ / গাইবান্ধার খবর / বেঁচে থাকলে সাঘাটা,ফুলছড়ির মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন ঘটাবো- ডেপুটি স্পীকার

বেঁচে থাকলে সাঘাটা,ফুলছড়ির মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন ঘটাবো- ডেপুটি স্পীকার

সাঘাটা (গাইবান্ধা) প্রতিনিধিঃ জাতীয় সংসদের ডেপুটি স্পীকার ফজলে রাব্বী মিয়া এমপি বলেছেন, শুধু উন্নয়নই নয় বেঁচে থাকলে সাঘাটা – ফুলছড়ির মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন ঘটাবো। ডেপুটি স্পীকার আরও বলেন, জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সারা দেশে উন্নয়নের ধারাবাহিকতায় সাঘাটা -ফুলছড়িতে স্কুল, কলেজ, রাস্তা, ব্রিজ,কালভাট সহ বিভিন্ন ধরনের উন্নয়ন হয়েছে। সর্বশেষ এ দু উপজেলার নদী ভাঙ্গন রোধে প্রায় ৮০০ শত কোটি টাকার প্রকল্প পাস হয়েছে।
জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভায় সাঘাটা-ফুলছড়ি উপজেলায় যমুনা নদীর ডান তীরের ভাঙ্গন রোধে ৭৯৮ কোটি ৫৩ লাখ টাকার প্রকল্প অনুমোদ হওয়ায় গতকাল শনিবার বিকেলে জুমারবাড়ী মাদ্রাসা মাঠে হলদিয়া ও জুমারবাড়ী ইউনিয়ন পরিষদ আয়োজিত তাকে দেয়া সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।
অবসরপ্রাপ্ত অতিরিক্ত সচিব আইয়ুব হোসেন এর সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, সাঘাটা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর কবীর, গাইবান্ধা পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মোখলেছুর রহমান, সাঘাটা উপজেলা নির্রাহী অফিসার মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর, উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি নাজমুল হুদা দুদু, গাইবান্ধা জেলা পরিষদ সদস্য সাখাওয়াত হোসেন প্রমূখ।
উল্লেখ্য পানিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের যমুনা নদীর ডান তীরের ভাঙ্গন থেকে গাইবান্ধার ফুলছড়ি উপজেলার কাতলামারী এবং সাঘাটা উপজেলার গোবিন্দি ও হলদিয়া এলাকা রক্ষা প্রকল্প। এতে খরচ হবে ৭৯৮ কোটি ৫৩ লাখ টাকা। চলতি বছরের জুলাই থেকে ২০২৩ সালের জুনের মধ্যে প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করা হবে।

Check Also

জমি নিয়ে বিরোধে সাঘাটায় বিমাতা ভাইয়ের হাতে ভাই খুন

জয়নুল আবেদীন , স্টাফ রিপোর্টারঃ গাইবান্ধার সাঘাটা উপজেলার জুমারবাড়ি ইউনিয়নের বাদিনার পাড়া গ্রামে জমি নিয়ে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ten + 19 =