সংবাদ শিরোনামঃ
প্রচ্ছদ / গাইবান্ধার খবর / মহিমাগঞ্জের রংপুর চিনিকলের বাণিজ্যিক খামারের জমিতে স্থাপিত হচ্ছে ‘রংপুর রপ্তানী প্রক্রিয়াকরণ এলাকা’

মহিমাগঞ্জের রংপুর চিনিকলের বাণিজ্যিক খামারের জমিতে স্থাপিত হচ্ছে ‘রংপুর রপ্তানী প্রক্রিয়াকরণ এলাকা’

মনজুর হাবীব মনজু, গোবিন্দগঞ্জ (গাইবান্ধা) থেকে : গাইবান্ধা জেলার কৃষিভিত্তিক একমাত্র ভারিশিল্প কারখানা গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার মহিমাগঞ্জের রংপুর চিনিকলের বাণিজ্যিক খামারের জমিতে ‘রংপুর রপ্তানী প্রক্রিয়াকরণ এলাকা’ স্থাপনের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে সরকার। গত বছরের ১২ নভেম্বর বাংলাদেশ রপ্তানী প্রক্রিয়াকরণ কর্তৃপক্ষ (বেপজা)’র ৩৪তম সভায় এ সিদ্ধান্ত গৃহিত হয়। সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নের লক্ষ্যে পাঁচ সদস্যের একটি কমিটিও গঠিত হয়েছে। আগামি ৩০ মার্চের মধ্যে এ কমিটিকে জমির প্রকৃত চাহিদা নিরূপনপূর্বক বিদ্যমান বিধি বিধানের আলোকে জমির মূল্য ও জমি হস্তান্তর বিষয়ে একটি পূর্ণাঙ্গ প্রতিবেদন শিল্প মন্ত্রণালয়ের সচিব বরাবরে দাখিল করার নির্দেশ সংক্রান্ত একটি চিঠিতে এ তথ্য জানা গেছে। সিনিয়র সহকারী সচিব আফরোজা বেগম পারুল স্বাক্ষরিত এ চিঠি ইতোমধ্যে কমিটির সদস্যদের কাছে প্রেরণ করা হয়েছে। এদিকে রংপুর চিনিকল শ্রমিক-কর্মচারী ইউনিয়ন আজ শনিবার এ বিষয়ের আলোকে সূধী সমাবেশ আহ্বান করেছে।
সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, গত বছরের ১২ নভেম্বর তারিখে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বাংলাদেশ রপ্তানী প্রক্রিয়াকরণ কর্তৃপক্ষ (বেপজা)’র ৩৪তম বোর্ড সভায় রংপুর চিনিকলের সাহেবগঞ্জ ইক্ষু খামারের ১৮৩২.২৭ একর জমিতে ‘রংপুর রপ্তানী প্রক্রিয়াকরণ এলাকা’ স্থাপন এবং শিল্প মন্ত্রণালয় এ জমি বেপজার অনুকূলে হস্তান্তরের প্রয়োজনীয় কার্যক্রম গ্রহণ করবে বলে সিদ্ধান্ত গৃহিত হয়। এ সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নের জন্য শিল্প মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম-সচিব (বিএসএফআইসি)কে আহŸায়ক এবং বেপজার প্রকল্প পরিচালক, বেপজার উপসচিব (আইন), রংপুর চিনিকলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক, ও বিএসএফআইসি’র মহাব্যবস্থাপক (আইন ও সম্পত্তি)কে সদস্য করে একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটি জমির প্রকৃত চাহিদা নিরূপনপূর্বক বিদ্যমান বিধি বিধানের আলোকে জমির মূল্য ও জমি হস্তান্তর বিষয়ে একটি পূর্ণাঙ্গ প্রতিবেদন আগামি ৩০ মার্চের মধ্যে শিল্প মন্ত্রণালয়ের সচিব বরাবরে দাখিল করবে।
রংপুর চিনিকল শ্রমিক-কর্মচারী ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান দুলাল সরকারের এ সিদ্ধান্ত গ্রহণের বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আদিবাসী সাঁওতালদের সামনে রেখে একটি চিহ্নিত ভূমিদস্যু দলের অব্যাহত সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের কারণে সরকার এ সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে থাকতে পারে। তবে চিনিকলের স্বার্থ বিসর্জন দিয়ে এ সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন করা যাবেনা। এ বিষয়ের আলোকে স্থানীয় রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, আখচাষী, শ্রমিক-কর্মচারীসহ সকলকে অবগত করানো ও পরবর্তীতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য আজ সুধী সমাবেশের আয়োজন করা হয়েছে।

Check Also

সাঘাটায় দাওয়াত খেতে এসে প্রতিপক্ষের হামলায় স্কুল ছাত্র আহত

সাঘাটা প্রতিনিধিঃ গাইবান্ধা জেলার সাঘাটা উপজেলা বেলতৈল গ্রামের আব্দুল মান্নানের ছেলে অষ্টম শ্রেণীর শিক্ষার্থী নুর …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

four × one =