সংবাদ শিরোনামঃ
প্রচ্ছদ / গাইবান্ধার খবর / মহিমাগঞ্জে বাঙালি নদী থেকে অবৈধ বালু উত্তোলনে হুমকির মুখে তিনটি সেতু

মহিমাগঞ্জে বাঙালি নদী থেকে অবৈধ বালু উত্তোলনে হুমকির মুখে তিনটি সেতু

মনজুর হাবীব মনজু,গোবিন্দগঞ্জ (গাইবান্ধা) প্রতিনিধি : গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার মহিমাগঞ্জ এলাকার বাঙালি নদীর সতীতলা মজিদেরঘাট, দেওয়ানতলা সড়কসেতু ও দেওয়ানতলা রেলসেতু এলাকা থেকে দীর্ঘদিন যাবত অবৈধভাবে ভূগর্ভস্থ বালু উত্তোলনের মহোৎসব শুরু হয়েছে। একই সাথে নদীর চরের বালু চুরি করে বিক্রি করায় দেওয়ানতলা রেলসেতু সহ তিনটি সড়ক সেতু হুমকির সম্মুখীন হয়ে পড়েছে।
সরেজমিনে মহিমাগঞ্জের দেওয়ানতলা ও সতীতলা এলাকা ঘুরে জানা গেছে, গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার সাথে পার্শ্ববর্তী সাঘাটা, ফুলছড়ি এবং গাইবান্ধা সদরের সাথে যোগাযোগের মাধ্যম দেওয়ানতলা সড়কসেতু এলাকায় এবং দেওয়ানতলা রেলসেতু এলাকায় একশ্রেণির স্বার্থান্বেষী বালু ব্যবসায়ী চক্র প্রচলিত আইন ও প্রশাসনকে বৃদ্ধাঙ্গুলী দেখিয়ে দিন-রাত বিরামহীনভাবে নদী থেকে শ্যালো মেশিন দিয়ে ভূগর্ভস্থ বালু উত্তোলন করছে। এতে ওই এলাকার রেলসেতু এবং দেওয়াতলা সড়ক সেতুটি মারাত্মক হুমকির সম্মুখীন হয়েছে পড়েছে। এছাড়াও এখান থেকে মাত্র এক কিলোমিটার ভাটি এলাকায় অবস্থিত মজিদেরঘাট এলাকায় ভূগর্ভস্থ ও নদীচরের মাটি চুরি করে অবাধে বিক্রি করছে স্থানীয় দুই বালুদস্যু। এতে একদিকে যেমন গুরুত্বপূর্ণ সড়কসেতুও একই কারণে ধ্বসে পড়ার আশংকা দেখা দিয়েছে। এ কারণে এসব এলাকার জনবসতি এবং আবাদি জমি ধ্বংস হওয়ার আশংকা করছেন স্থানীয় গ্রামবাসীরা। ইতোমধ্যেই বেশকিছু আবাদী জমি ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে অভিযোগ করেছেন তাঁরা।
অন্যদিকে বালুবাহী অবৈধ ট্রাক্টরগুলি বালু বোঝাই করে দিনরাত দাপিয়ে বেড়াচ্ছে এখানকার বিভিন্ন সড়কে। এতে ঘটছে নানা ধরণের দুর্ঘটনা এবং নষ্ট হয়ে যাচ্ছে রাস্তাঘাট। ইতোমধ্যেই ট্রাক্টরের বালু পড়ে বালুময় হয়ে পড়েছে বেশকিছু সড়ক। যানবাহন চলাচলের ফলে ধূলোয় অন্ধকার হয়ে পড়ছে গোটা এলাকা। বিভিন্ন পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশের পর কিছুদিন পূর্বে প্রশাসনের উদ্যোগে দেওয়ানতলা এলাকায় অভিযান চালিয়ে বালু উত্তোলনের কাজে বেশ কয়েকটি শ্যালো মেশিন ধ্বংস করা হয়। কিন্তু আবারও প্রশাসনকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে আবারও বালু উত্তোলনের মহোৎসব শুরু করেছে বালুদস্যুরা। অবিলম্বে স্থানীয় জনবসতি, আবাদী জমি এবং এলাকার গুরুত্বপূর্ণ একটি রেলসেতু সহ বৃহৎ তিনটি সড়ক সেতু রক্ষায় প্রশাসনকে কঠোর ও কার্যকরী পদক্ষেপ গ্রহণের আবেদন জানিয়েছেন সচেতন মানুষ।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে মহিমাগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রুবেল আমিন শিমুল জানান, দীর্ঘদিন যাবত বালুদস্যুরা অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করে তিনটি গুরুত্বপূর্ণ সেতু হুমকির মুখে ফেলেছে। তাই এসব বালুদস্যুদের বিরুদ্ধে দ্রুত কার্যকরী পদক্ষেপ গ্রহণ করা প্রয়োজন।

Check Also

মহিমাগঞ্জে ‘উচ্চশিক্ষা কেন, কিভাবে, কোন বিষয়ে’ শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত

মনজুর হাবীব মনজু, গোবিন্দগঞ্জ (গাইবান্ধা) প্রতিনিধিঃ অর্ধসহস্রাধিক শিক্ষার্থীর অংশগ্রহনে শনিবার গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার মহিমাগঞ্জে ঢাকা …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

three + 6 =