সংবাদ শিরোনামঃ
প্রচ্ছদ / বগুড়ার খবর / মাদক সেবনের অভিযোগে গ্রেফতার সানির বাবা-মার আকুতিঃ আমাদের ছেলে গাঁজা সেবন করেনা

মাদক সেবনের অভিযোগে গ্রেফতার সানির বাবা-মার আকুতিঃ আমাদের ছেলে গাঁজা সেবন করেনা

বাঙালি বার্তা ডেস্কঃ গত শুক্রবার সোনাতলা থানা পুলিশের বিশেষ অভিযানে আটক সোনাতলা পৌর এলাকার গোপাই শাহবাজপুর গ্রামের আরিফুল ইসলাম সানি গ্রেফতারের ঘটনায় সানির বাবা আনসার আলী ও মা সাজেদা বেগম প্রশাসনসহ সুধীজনদের দৃষ্টি আকর্ষণ করে আকুতি জানিয়ে বলেছেন- ‘আমাদের ছেলে সানি অত্যন্ত মেধাবী ছাত্র। সে সরকারি নাজির আখতার কলেজের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের তৃতীয় বর্ষের ছাত্র। ছাত্র অবস্থা থেকেই সে প্রাইভেট টিউশনীর সাথে যুক্ত। বর্তমানে পড়াশুনার পাশাপাশি সে স্থানীয় সোনাতলা প্রি-ক্যাডেট স্কুলে পার্টটাইম শিক্ষকতা করছে। তাঁর আয়ে আমার অভাবের সংসার চলে। সে ২০১৯ সালের জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহে জেলা পর্যায়ে রচনা প্রতিযোগিতায় প্রথম স্থান অধিকার করেছে। বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় সে বরাবর ভাল ফলাফল করতো। পাঁচ ওয়াক্ত নামাজী আমাদের এই ছেলে বিভিন্ন সামাজিক- সাংস্কৃতিক সংগঠনের সাথে যুক্ত এবং মাদক বিরোধী আন্দোলনে সে সাহসী ভূমিকা পালন করে আসছে। সে কোনদিন গাাঁজাতো দূরের কথা বিড়িও ছুয়ে দেখেনি। শুক্রবার আনুমানিক বিকেল সাড়ে পাঁচটার দিকে সে উপজেলা পরিষদ থেকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে যাওয়ার পথে আকস্মিকভাবে বৃষ্টির কবলে পড়লে দৌড়ে পার্শ্ববর্তী ফজিলা শরীফ মহিলা দাখিল বালিকা মাদ্রাসার বারান্দায় ওঠে। সে সময় সেখানে কিছু গাঁজাখোর গাঁজা খাচ্ছিলো। এমন সময় পুলিশ সেখানে গিয়ে গাঁজাখোরসহ সানীকে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে আসে ও অন্যান্য মাদকসেবীদের সাথে যুক্ত করে মামলা দিয়ে বগুড়ায় চালান করে। সানী যে গাঁজা সেবন করেনা তা তাকে ডোপ টেস্ট করলেই নিশ্চিত হওয়া যাবে। আমি প্রশাসনসহ উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নিকট আকুল আবেদন জানাই বিনা অপরাধে গ্রেফতার সানীকে ছেড়ে দিয়ে মূল মাদক ব্যবসায়ী ও সেবনকারীদের বিরুদ্ধে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা নিন।
এ বিষয়ে সানী যে স্কুলে পার্টটাইম শিক্ষক হিসেবে কর্মরত সেই স্কুলের পরিচালক আব্দুল হান্নান জানিয়েছেন, সানী আত্যন্ত মেধাবী, সে ধুমপান বা গাঁজা সেবনের সাথে কখনোই জড়িত নয়, ওইদিন ঘটনার একটু আগে সোনাতলা উপজেলা পরিষদ মসজিদে একসাথে আছরের নামাজ পড়েছি। সোনাতলা উপজেলা খেলাঘরের সভাপতি মহসীন আলী তাহা জানান, সানী উপজেলা খেলাঘরের সহ- সাধারণ সম্পাদক, সে কখনোই গাঁজা সেবনের সাথে যুক্ত নয়, আমি তার দ্রুত মুক্তি দাবী করছি। পৌরসভার ৪ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর হারুন অর রশীদ জানান, সানী অত্যন্ত ভাল ছেলে, সে কোন নেশার সাথে জড়িত নয়।
সোনাতলা থানার এসআই বাসির আহম্মেদ জানান, ঘটনাস্থলে গিয়ে তাদেরকে পেয়েছি, তারা মাদক সেবনের সাথে জড়িত।
সোনাতলার সাধারণ মানুষ সোনাতলাকে মাদকমুক্ত করতে পুলিশ প্রশাসনের পদক্ষেপকে সাধুবাদ জানালেও সানীর বিষয়টি ভালমতো খতিয়ে, প্রয়োজনে ডোপ টেস্টের মাধ্যমে নিষ্পত্তির দাবী জানিয়েছেন। এক্ষেত্রে কেউ যেন অযথা হয়রানির শিকার না হন তা নিশ্চিত করার আহ্বান জানিয়েছেন।

Check Also

সোনাতলা উপজেলা আ’লীগের নবনির্বাচিত সভাপতি ও সম্পাদককে সংবর্ধনা দিলো মানবিক বাংলাদেশ সোসাইটি

আব্দুর রাজ্জাক, স্টাফ রিপোর্টারঃ বগুড়ার সোনাতলায় মানবিক বাংলাদেশ সোসাইটি সোনাতলা উপজেলা শাখা কর্তৃক উপজেলা আওয়ামী …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

six − five =