সংবাদ শিরোনামঃ
প্রচ্ছদ / বগুড়ার খবর / শাজাহানপুরে লাশ উদ্ধারের পরেও মুক্তিপন দাবীঃ আদমদিঘীতে হত্যার পর ভ্যান ছিনতাই

শাজাহানপুরে লাশ উদ্ধারের পরেও মুক্তিপন দাবীঃ আদমদিঘীতে হত্যার পর ভ্যান ছিনতাই

মোঃ আব্দুল ওয়াদুদ, বগুড়া প্রতিনিধিঃ
বগুড়ার শাজাহানপুর ও আদমদিঘি উপজেলায় দুই চালককে হত্যা করে তাদের ব্যবহৃত ব্যাটারী চালিত ইজিবাইক ও ভ্যানগাড়ী ছিনতাই করা হয়েছে। পুলিশ তাদের দুজনের লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য বগুড়া মর্গে পাঠিয়েছে। এসব ঘটনার সাথে জড়িত কাউকে আটক করতে পারেনি পুলিশ।
নিহত স্কুলছাত্র সাব্বির হোসেনের (১৫) হাত-পা বাঁধা লাশ বৃহস্পতিবার বেলা ১১ টার দিকে শাজাহানপুর থানার খরনা ইউনিয়নের জগন্নাথপুর গ্রামের মাঠে একটি ডোবা থেকে উদ্ধার করে পুলিশ । সে কাহালু থানার জামগ্রাম ইউনিয়নের জামগ্রাম জামাইপাড়ার গোলাম রব্বানীর ছেলে এবং জামগ্রাম উচ্চ বিদ্যালয়ের ৭ম শ্রেণির ছাত্র।
সাব্বিরের বাবা গোলাম রব্বানী পেশায় ইজিবাইক চালক। তিনি অসুস্থ থাকায় সাব্বির ইজিবাইক চালাতো। গত মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৭ টার দিকে সাব্বির ইজিবাইক নিয়ে জামগ্রাম বাজারে যায়। এরপর রাতে বাড়ি ফেরেনি। সাব্বিরের বাবা পরদিন বুধবার ছেলে নিখোঁজের ব্যাপারে কাহালু থানায় জিডি করেন। ওই রাতেই অজ্ঞাত এক ব্যক্তি গোলাম রব্বানীর কাছে মোবাইল ফোনে ৩ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে। এক পর্যায়ে অজ্ঞাত ব্যক্তি গোলাম রব্বানীকে জানায়, ২ লাখ টাকা দিলে তার ছেলেকে জীবিত ফেরত দেয়া হবে। এদিকে, বৃহস্পতিবার শাজাহানপুর থানার বীরগ্রাম- ডেসমা পাকা সড়কের পাশ্বে জগন্নাথপুর গ্রামের মাঠে হাত-পা বাঁধা ও গলায় ফাঁস দেয়া অবস্থায় একটি লাশ দেখতে পান গ্রামের লোকজন। পরে পুলিশে খবর দেয়া হলে লাশ উদ্ধার করে তার পরিচয় শনাক্ত করা হয়। নিহত সাব্বিরের বাবা গোলাম বলেন, মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে ছেলেকে তিনজন অচেনা যাত্রী নিয়ে জামগ্রাম বাজার থেকে গ্রামের রাস্তায় দেখা গেছে। এরপর থেকে তার সন্ধান পাওয়া যায়নি। তিনি আরো বলেন, মুক্তিপণের বিষয়টি তাৎক্ষণিক কাহালু থানা পুলিশকে জানানো হয়েছিল। এদিকে বৃহস্পতিবার লাশ উদ্ধারের পরেও অপহরণকারী চক্র মোবাইল ফোনে গোলাম রব্বানীর কাছে ৬০ হাজার টাকা মুক্তিপণ দাবি করে।
বগুড়া সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ফয়সাল মাহমুদ বলেন, ছিনতাইকারী চক্র চালককে হত্যা করে ইজিবাইক নিয়ে গেছে বলে প্রাথমিকভাবে মনে করা হচ্ছে। মোবাইল ফোনে মুক্তিপন দাবী করার বিষয়টি নিয়েও পুলিশ কাজ করছে।
এদিকে জেলার আদমদিঘি থানা পুলিশ বৃহস্পতিবার ধনতলা মেসকা পাড়ার একটি ধানী জমি থেকে শামীম হোসেন (২৭) নামের এক ব্যাটারী চালিত ভ্যানগাড়ী চালকের লাশ উদ্ধার করেছে । সে পাশের নওগাঁ জেলার রানীনগর থানার বেলকা গ্রামের সেকেন্দার আলীর পুত্র।
থানা পুলিশ জানায়, কে বা কারা তাকে হত্যা করে নশরতপুর-বশিপাড়া রাস্তার ধনতলা মেসকাপাড়ার ওই জমিতে বুধবার রাতে ফেলে গেছে। এলাকাবাসীর ধারনা , গলায় গামছা পেচিয়ে শ্বাসরুদ্ধ করে অন্য জায়গায় হত্যার পর লাশ সেখানে ফেলে গেছে। হত্যার পর ভ্যানগাড়ীটিও ছিনিয়ে নিয়ে গেছে ঘাতকরা। নিহতের কপালে অঘাতের চিহ্ন রয়েছে। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে বগুড়া মর্গে পাঠায়।

Check Also

সারিয়াকান্দিতে বঙ্গবন্ধু কর্ণার উদ্বোধন

সারিয়াকান্দি প্রতিনিধি: বগুড়ার সারিয়াকান্দিতে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু কর্ণার এর উদ্বোধন করা হয়েছে। রোববার দুপুরে উপজেলার …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

three + seventeen =