সংবাদ শিরোনামঃ
প্রচ্ছদ / বগুড়ার খবর / শিবগঞ্জের মকবুল মৎস্য চাষ করে এখন স্বাবলম্বী

শিবগঞ্জের মকবুল মৎস্য চাষ করে এখন স্বাবলম্বী

মো. আব্দুল ওয়াদুদবগুড়া প্রতিনিধি : শুরুটা ২০০২ সাল। অষ্টম শ্রেণী পর্যন্ত পড়ালেখার পর আর স্কুলে যাওয়া হয়নি। বেকারত্ব ঘুচানোর জন্য মাত্র ১৫ হাজার টাকার পুঁজি নিয়ে এক একর পরিমাপের একটি পুকুর লিজ নিয়ে মৎস চাষ শুরু। প্রথম বছর লোকসান হলেও হতাশ না হয়ে পরিকল্পিতভাবে মাছ চাষ ধরে রাখা। এর পরের গল্প শুধু সামনে সফলতার দিকে এগিয়ে যাওয়ার। হ্যা, বলা হচ্ছে বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলার আটমুল ইউনিয়নের পুয়েগাড়ীর মকবুল হোসেনের কথা। ছোট বেলা থেকেই যার মধ্যে উদ্যোক্তা হবার বাসনা। তাইতো অল্প বয়স থেকেই মাছ চাষ ও মুরগী পালন শুরু। মকবুল হোসেনের বর্তমান বয়স আনুমানিক ৩৬ বছর। স্ত্রী ও দুই ছেলেকে নিয়ে তার ছোট সংসার। সম্প্রতি সরজমিনে গিয়ে দেখা যায়, তার এলাকায় বর্তমানে প্রায় ১৭ একরের ৬টি পুকুরে সে মৎস চাষ করছে। এছাড়াও তার বসতবাড়ী সংলগ্ন তিনতলা বিশিষ্ট একটি পোল্ট্রি খামার রয়েছে। যেখানে ১২ হাজার পাকিস্থানী সোনালী জাতের মুরগী পালিত হচ্ছে। সব মিলিয়ে ১৫ হাজার টাকার মূলধন বর্তমানে প্রায় ২০ লক্ষ টাকায় উপনীত হয়েছে বলে সফল এ খামারি জানান। জানা যায় তার প্রতিষ্ঠানে বর্তমানে ১০-১৫ জনের কর্মস্থানের ব্যাবস্থা হয়েছে। তার এ সফলতায় এলাকার অনেকেই উৎসাহিত হয়ে মাছ চাষ ও পোল্ট্রি ব্যবসা শুরু করে স্বাবলম্বী হয়েছে। তিনি আরো জানান, এলাকার বেকার যুবকদের সংগঠিত করে সমবায় সমিতি গঠনের মাধ্যমে তাদের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করার প্রচেষ্টা অব্যাহত রেখেছেন। তিনি বলেন সরকারী- বেসরকারী পৃষ্ঠপোষকতা ও মুলধনের ব্যবস্থা করতে পারলে ভবিষ্যতে অত্র এলাকায় আরো ব্যাপক পরিসরে মৎসচাষ ও পোল্ট্রি খামার গড়ে তুলবেন। বলা যেতে পারে তিনি একজন সফল মৎসচাষী ও পোল্ট্রি খামারী। তার এ সফলতায় অনেকেই অনুপ্রেরণা নিয়ে সফল উদ্যেক্তা হতে পারেন।

Check Also

সোনাতলা উপজেলা আ’লীগের নবনির্বাচিত সভাপতি ও সম্পাদককে সংবর্ধনা দিলো মানবিক বাংলাদেশ সোসাইটি

আব্দুর রাজ্জাক, স্টাফ রিপোর্টারঃ বগুড়ার সোনাতলায় মানবিক বাংলাদেশ সোসাইটি সোনাতলা উপজেলা শাখা কর্তৃক উপজেলা আওয়ামী …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

nine + 1 =