সংবাদ শিরোনামঃ
প্রচ্ছদ / গাইবান্ধার খবর / সাঘাটায় পাকুরতলা বাঙালি সেতুর পশ্চিম পাড়ের সড়ক নির্মাণ নিয়ে জটিলতায় ঘর-বাড়ি, দোকান ভাঙচুর লুটঃ আহত-৭

সাঘাটায় পাকুরতলা বাঙালি সেতুর পশ্চিম পাড়ের সড়ক নির্মাণ নিয়ে জটিলতায় ঘর-বাড়ি, দোকান ভাঙচুর লুটঃ আহত-৭

জয়নুল আবেদীন , সাঘাটা প্রতিনিধিঃ সাঘাটা উপজেলার কামালের পাড়া ইউনিয়নের পাকুরতলায় বাঙালি নদীর উপর নব নির্মিত পাকুরতলা সেতুর পশ্চিম পাড়ে সড়ক নির্মাণ নিয়ে চলমান জটিলতাকে কেন্দ্র করে ফলিয়া দিগর (পাকুরতলা) গ্রামে প্রতিপক্ষের সংঘবদ্ধ হামলায় ঘর-বাড়ি ,দোকান ভাঙচুর লুটসহ ৭ জন আহত হয়েছে। এতে ৭টি ঘর-বাড়ি এবং ১ টি দোকানের প্রায় ৫ লাখ টাকার ক্ষতি সাধিত হয়েছে। আহতরা হলেন, চম্পা (১৮), আমিনুল (২১), ফিরাজুল (৪৫), শহিদুল (৪২), মহিদুল (৪৩), দেলোয়ার(৪০) । আহত হয়। এসময় ওই এলাকার লোকজনের মধ্যে আতংক ছড়িয়ে পড়ে। পরে থানায় সংবাদ দিলে পুলিশ ঘটনা স্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করলেও সেখানে উত্তেজনা বিরাজ করছে। আহতদেরকে সাঘাটা উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তাদের সকলের অবস্থা আশংকাজনক ।
এলাকা বাসি সূত্রে জানা গেছে,উপজেলার কামালের পাড়া ইউনিয়নের সাথে সোনাতলা ও গোবিন্দগঞ্জ দু’উপজেলার যোগাযোগের জন্য বাঙালি নদীর উপর নবনির্মিত ফলিয়া (পাকু্রতলা) ব্রিজের পশ্চিম পাড়ে নতুন রাস্তা নির্মাণ নিয়ে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের সাথে জমির মালিকদের বিরোধ সৃষ্টি হওয়ায় রাস্তার নির্মাণ কাজ স্থগিত হয়। ফলে স্থানীয় মৃত আব্দুল গণির ছেলে এমদাদুল হক ও সেকেন্দার আলীর ছেলে তোতা মিয়ার নেতৃত্বে একটি প্রভাবশালী মহল প্রকৌশল অধিদপ্তরের পক্ষ নিয়ে ওই জমির মালিকদের সাথে বিরোধে জড়িয়ে পড়ে। জমির মালিকরা জানান ,৪০ সালের রে্কর্রভুক্ত পুরাতন রাস্তা রয়েছে। তা পূনঃনির্মণ না করে আমাদের আবাদি জমি নষ্ট করে স্থানীয় একটি প্রভাবশালী মহল স্থানীয় সারকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের সাথে যো্গসাজসে নতুন নকশা তৈরী করে রাস্তা নির্মাণ করার পায়তারা করছে। আমরা ঘটনাটি জানার পর ম্যাপ পরিবর্তনের জন্য প্রকৌশল অধিদপ্তরে আবেদন করেছি, কিন্তু স্থানীয় সরকার প্রকৌশল রাস্তার ম্যাপ পরিবর্তন না করে স্থানীয় প্রভাবশালী লোকজনকে দিয়ে আমাদের পক্ষের নি্রীহ লোকজনের বাড়ি-ঘরে হামলা ভাঙচুর ,লুটপাটসহ নানা ভাবে ক্ষতি সাধন করে আসছে। এরই ধারাবাহিকতায় গত বুধবার বিকেলে জমির মালিক পক্ষের একজন ফলিয়া দিগর (পাকুরতলা) গ্রামের সাদেক আলীর ছেলে জয়দুল ইসলাম মোটরসাইকেল যোগে বাড়ি থেকে সোনাতলা যাবার সময় পথিমধ্যে তার পথ রোধ করে প্রতিপক্ষের প্রভাবশালীরা জয়দুলকে মারপিট করে। এর কিছুক্ষণ পরেই আবার প্রভাবশালী পক্ষটি সংঘবদ্ধ হয়ে বিভিন্ন অস্ত্র-সস্ত্র নিয়ে নিরহ লোকজনের বাড়িতে হামলা চালিয়ে বাড়ি-ঘর ,দোকান ভাঙচুর, টাকা ও জিনিসপত্র লুট করে। এতে ৭ ব্যক্তির বাড়িঘর ও দোকানের ৫ লাখ টাকার ক্ষতি হয় । এসময় বাঁধা দিতে গিয়ে মহিলাসহ ৬ জন আহত হয় । এব্যাপারে জয়দুল ইসলাম বাদি হয়ে ৩১ জনের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করেছে। পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।

Check Also

সরকারি নাজির আখতার কলেজের ৯৫ ব্যাচের মেধাবী ছাত্র প্রভাষক মিজানুর রহমানের অকালপ্রয়াণ

বাঙালি বার্তা ডেস্কঃ সরকারি নাজির আখতার কলেজের ৯৫ ব্যাচের মেধাবী ছাত্র ও বোনারপাড়া ডিগ্রী কলেজের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

two × three =