সংবাদ শিরোনামঃ
প্রচ্ছদ / গাইবান্ধার খবর / সাঘাটায় বন্যা পরিস্থিতি আরও বিপদজনকঃ সাঘাটা-গাইবান্ধা সড়কে ভাঙ্গনে যোগাযোগ বন্ধ

সাঘাটায় বন্যা পরিস্থিতি আরও বিপদজনকঃ সাঘাটা-গাইবান্ধা সড়কে ভাঙ্গনে যোগাযোগ বন্ধ

জয়নুল আবেদীন, বিশেষ প্রতিনিধিঃ সাঘাটা উপজেলায় বন্যার সার্বিক পরিস্থিতি আরও বিপদজনক হয়ে পড়েছে। পানির চাপে সাঘাটা- গাইবান্ধা সড়কে ভরতখালী এলাকায় বরমতাইড় নামক স্থানে ভয়াবহ সুরঙ্গ দিয়ে পানি অতিক্রম। বিভিন্ন স্থানে বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ চুঁইয়ে বের হচ্ছে পানি । ফলে সড়ক এবং বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ মারাত্মক হুমকীর মধ্যে পড়েছে। যে কোনো মুহুর্তে সড়ক ও বাঁধ ভেঙ্গে যাওয়ার আশংকা এলাকাবাসির । ঝুঁকিপূর্ণ এসড়কটি ভরতখালী হাট হতে উল্যা ভরতখালী রেল গেট পর্যন্ত যোগাযোগ বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।
অবিরাম বর্ষণ ও উজান থেকে পাহাড়ী ঢল নেমে আসা অব্যাহত থাকায় যমুনা নদীর পানি ফুঁসে উঠে গত সোমবার বিকাল ৪ টার পর থেকে পরবর্তী ২৪ ঘন্টায় সাঘাটা উপজেলায় বন্যার সার্বিক পরিস্থিতি আরও বিপদজনক হয়ে পড়েছে।
বন্যার পানি অস্বাভাবিক ভাবে ফুঁসে ওঠায় পানির চাপে ভরতখালী এলাকার বরমতাইড় নামক স্থানে গতকাল মঙ্গলবার ভোরে সাঘাটা-গাইবান্ধা সড়কের নিচ দিয়ে প্রায় ১০ ফুট স্থান জুড়ে সুরঙ্গ সৃষ্টি হয়ে প্রবল বেগে পানি অতিক্রম করতে থাকে। এসময় সড়ক সংলগ্ন বসবাসকারী লোকজনের মধ্যে আতংক ছড়িয়ে পড়ে। সংবাদপেয়ে সাথে সাথে স্থানীয় লোকজন এবং পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তারা যৌথ প্রচেষ্টায় বাঁশ,খর ও বালুর বস্তা ফেলে কোনরকম ভাবে ভাঙ্গন রোধ করে। এছাড়া ওই সড়কের হাট ভরতখালী রিক্সা স্ট্যান্ডের ১ শত গজ উত্তরে সড়কের নিচ দিয়ে চুঁইয়ে পানি বের হচ্ছে। তাছাড়া কোথাও কোথাও সড়কের উপর দিয়ে পানি গড়িয়ে পড়ার উপক্রম হয়েছে।
গাইবান্ধা পানিউন্নয়ন বোর্ডের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী রোজাউর রহমান রেজার সাথে কথা হলে তিনি জানান, সাঘাটা-গাইবান্ধা সড়কের বরমতাইড় এলাকার ভাঙ্গন কোন রকমভাবে রক্ষা করা গেলেও সড়ক এবং বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ আশংকা মুক্ত নয়। কুকড়ার হাট থেকে জুমারবাড়ী বাজারের প্রবেশ পথ পর্যন্ত সড়ক এবং বাঁধ ঝুকিপূর্ণ। এছাড়া গত সোমবার বিকেলে উল্যা ২ নং ক্রসবাঁধ ভেঙ্গে বিস্তীর্ণ এলাকার ঘর-বাড়ি পানিতে তলিয়ে গেছে। বাঁধ সংলগ্ন বসবাসকারী হাফিজুর রহমান ও ভুট্রু নামে দুই লোকের ঘরবাড়ী ভেসে গেছে।
এদিকে পানিবন্দি এলাকার লোকজনের মধ্যে দুর্ভোগ চরম আকার ধারন করেছে। লোকজন কেউ কেউ আশ্রায়ন কেন্দ্রে ও বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে আশ্রায় নিয়ে গাদাগাদি ভাবে রয়েছে।
বাড়ি-ঘরে পানির কারণে তারা রান্না করতে না পারায় অনাহারে অর্ধাহারে দিনাতিপাত করছে। কিছু কিছু পরিবারের মাঝে শুকনা খাবার ও চাল বিতরন করা হয়েছে।

Check Also

গোবিন্দগঞ্জে পদ্মাসেতুর উদ্বোধন উপলক্ষে বিট পুলিশিং সমাবেশ অনুষ্ঠিত

মনজুর হাবীব মনজু,গোবিন্দগঞ্জ (গাইবান্ধা) প্রতিনিধি: বাঙালির গর্ব স্বপ্নের পদ্মাসেতু উদ্বোধন উপলক্ষে গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ থানা পুলিশের …

Leave a Reply

Your email address will not be published.

17 − ten =