সংবাদ শিরোনামঃ
প্রচ্ছদ / বগুড়ার খবর / সান্তাহারে ইউএনওর হস্তক্ষেপে বাল্য বিবাহ থেকে রক্ষা পেল নাবালিকা

সান্তাহারে ইউএনওর হস্তক্ষেপে বাল্য বিবাহ থেকে রক্ষা পেল নাবালিকা

মো: আবু বকর সিদ্দিক বক্কর,আদমদীঘি (বগুড়া) প্রতিনিধিঃ
সোমবার দুপুরে বগুড়ার আদমদীঘি উপজেলার সান্তাহারে নাবালিকা এক মেয়ের বাল্য বিবাহ বন্ধ করে দিয়েছে উপজেলা প্রশাসন। ১৮ বছর পূর্ণ না হওয়া পর্যন্ত মেয়ের বিয়ে দিবে না মর্মে পরিবারের লোকজন লিখিত ভাবে অঙ্গীকারনামা প্রদান করেন।
এলাকার বাসিন্দা ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, সান্তাহার পৌর শহরের পোষ্ট অফিস পাড়ার মহল্লার জাহাঙ্গীর হোসেন এর নাবালিকা মেয়ে মোছা: নুরজাহান নদী (১৭) এর সাথে এক ব্যক্তির বিয়ের প্রস্তুতি চলছিল। খবর পেয়ে আদমদীঘি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সীমা শারমীন সোমবার দুপুরে ওই বিয়ে বাড়িতে আসেন। এসে দেখেন বিয়ের অনুষ্ঠানের প্রক্রিয়া চলছিল। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও পুলিশের খবর পাওয়ার পর বর পক্ষের লোকজন আর কনের বাড়িতে যাননি।
আদমদীঘি উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মোশারফ হোসেন জানান, ‘উপজেলা প্রশাসনের হস্তক্ষেপে পরিবারটি কে বুঝিয়ে বাল্য বিয়ে থেকে নাবালিকা ওই মেয়েটিকে রক্ষা করা সম্ভব হয়েছে।’
এ সময় সান্তাহার পুলিশ ফাঁড়ির পরিদর্শক আরিফুল ইসলাম বাল্য বিবাহ বন্ধের সার্বিক সহয়োগিতা করেন।
আদমদীঘি উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সীমা শারমীন বলেন, ‘গোপন সংবাদের ভিত্তিতে এসে আমরা ওই বাল্য বিবাহ বন্ধ করি এবং মেয়ে প্রাপ্ত বয়স না হওয়া পযর্ন্ত বিয়ে দিতে পারবে না মর্মে মুচলেকা নেওয়া হয়েছে।’

Check Also

পানলা আলোকিত ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে নগদ অর্থ ও খাদ্য সামগ্রী বিতরণ

মো: আবু বকর সিদ্দিক বক্কর,আদমদীঘি (বগুড়া) প্রতিনিধি: বগুড়ার আদমদীঘি উপজেলার সান্তাহার ইউনিয়নের পানলা গ্রামের অবস্থিত …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

seventeen − four =