সংবাদ শিরোনামঃ
প্রচ্ছদ / বগুড়ার খবর / সারিয়াকান্দির হাটফুলবাড়ী ইউনিয়নের কাটাখালি ভোটকেন্দ্র স্হানান্তরের দাবি এলাকাবাসীর

সারিয়াকান্দির হাটফুলবাড়ী ইউনিয়নের কাটাখালি ভোটকেন্দ্র স্হানান্তরের দাবি এলাকাবাসীর

সারিয়াকান্দি প্রতিনিধিঃ বগুড়ার সারিয়াকান্দির হাটফুলবাড়ী ইউনিয়নের কাটাখালি ভোটকেন্দ্র স্হানান্তরের দাবি জানিয়ে উপজেলা ও জেলা নির্বাচন অফিসে গত রোববার আবেদন জমা দিয়েছেন চৌকিবাড়ী গ্রামের ভোটারবৃন্দ।

আবেদন সূত্রে জানা গেছে, ফুলবাড়ী ইউনিয়নের ৫ নং ওয়ার্ডটি কাটাখালি এবং চৌকিবাড়ী ২ টি গ্রাম নিয়ে গঠিত। চৌকিবাড়ী গ্রাম হতে কাটাখালি গ্রামের দূরত্ব দেড় কিলোমিটার। কাটাখালি গ্রামের ভোটার সংখ্যা ১৮৩৫। অপরদিকে চৌকিবাড়ী গ্রামের ভোটার সংখ্যা ১৬৮৯। ২ গ্রামের ভোটকেন্দ্র কাটাখালি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে। বিদ্যালয়টির কক্ষ সংখ্যা মাত্র ৩ টি। কেন্দ্রটিতে গাদাগাদি করে ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে ভোটারদের নানাবিধ ভোগান্তির শিকার হতে হয়। দীর্ঘক্ষণ লাইনে দাঁড়িয়ে থেকে অনেক ভোটাররা ভোট না দিয়েই ফিরে যান বাড়ীতে। অথচ চৌকিবাড়ী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়টির ৩ টি পাকা বিল্ডিং রয়েছে। যেখানে ভোটাররা আনন্দমুখর পরিবেশে স্বাচ্ছন্দভাবে ভোট দিতে পারবে। চৌকিবাড়ী এলাকাবাসী কাটাখালি ভোটকেন্দ্রটি তাদের গ্রামে স্হানান্তর অথবা ২ টি ভোটকেন্দ্র স্হাপনের দাবি জানিয়েছেন।

চৌকিবাড়ী গ্রামের সাইফুল ইসলাম জানিয়েছেন, ভোটকেন্দ্রে কক্ষের সংখ্যা কম থাকায় লাইনের সংখ্যাও কম হয়। ফলে অনেকেই লাইনে দাঁড়িয়ে থাকতে থাকতে বিরক্ত হয়ে ভোট না দিয়েই বাড়ীতে চলে যায়। এই সুযোগে প্রভাবশালীরা ভোটকেন্দ্রে নানা ধরনের অসুদুপায় অবলম্বন করে।
স্হানীয় সাবেক ইউ পি সদস্য শফিকুল ইসলাম জানিয়েছেন, কেন্দ্রটিতে ভোটাররা ভোট দিতে এসে নানা ধরনের ভোগান্তির স্বীকার হন। ফলে অসুস্থ এবং বয়স্ক ভোটাররা ভোটকেন্দ্রে ভোট দিতে আসেন না।
ফুলবাড়ী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আনোয়ারুত তারিক মোহাম্মদ বলেন, কেন্দ্রটিতে ভোট গ্রহণ করতে আসা প্রিজাইডিং, সহ প্রিজাইডিং, পোলিং,পুলিশ ও আনছারদের থাকার জন্য প্রতিবার একচালা ছাপরা ঘর নির্মাণ করা হয় এবং পরে ভেঙে ফেলা হয়। অপরদিকে স্হান সংকুলান না হওয়ায় কেন্দ্রটিতে ভোটাররা ভোট দিতে নানা ভোগান্তিতে পরেন। তাই কেন্দ্রটি স্হানান্তর বা ২ টি কেন্দ্র স্হাপন করা একান্ত প্রয়োজন।

সারিয়াকান্দি উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা সাখাওয়াত হোসেন জানান, এ সম্পর্কিত আবেদন গ্রামবাসী আমাদের অফিসে জমা দিয়েছেন। ইতিমধ্যেই কেন্দ্রটি পরিদর্শন করা হয়েছে। জেলা নির্বাচন অফিসেও আবেদন করেছেন গ্রামবাসী। জেলা নির্বাচন অফিস হতে তদন্ত সাপেক্ষে ভোটারদের সুবিধার্থে প্রয়োজনীয় ব্যবস্হা গ্রহণ করা হবে।

Check Also

সোনাতলায় বায়তুল মামুর কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে খাটিয়া প্রদান

আব্দুর রাজ্জাক, স্টাফ রিপোর্টারঃ শনিবার দুপুরে সোনাতলা উপজেলা পরিষদে বায়তুল মামুর কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে উপজেলা …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

five × three =