সংবাদ শিরোনামঃ
প্রচ্ছদ / ফিচার সংবাদ / সোনাতলার যমুনার চরে রাখালদের ঠোটে হারিয়ে যাওয়া বাঁশির সূরের মূর্ছনা

সোনাতলার যমুনার চরে রাখালদের ঠোটে হারিয়ে যাওয়া বাঁশির সূরের মূর্ছনা

আব্দুর রাজ্জাক, স্টাফ রিপোর্টারঃ বাংলার চিরায়ত সবুজ মাঠে সোনালী অতিত রাখালের গরুরপাল, রাখালের বাঁশির সেই সূর আর শোনা যায়না, আর চোখে পড়েনা। তবে হা্রিয়ে যাওয়া সূরের মূর্ছনা তোলা বাঁশি হাতে বাংলার রাখালদের এখনো দেখা যায় সোনাতলার যমুনার চরে। যমুনা তীরে রাখালের গরুর পাল। ভোরবেলায় সূর্য যখন লাল টকটুকে হয়ে দেখা দেয় রাখাল ছেলেরা তখন গরু নিয়ে মাঠে যায়। রাখালেরা বসে থাকে গাছের ছায়ায়, কখনও ছাতা মাথায়। কখনও গাছের ডালে বাঁশিটি হাতে নিয়ে, চুপ করে চেয়ে থাকে নদীর দিকে, আপন মনে নদীর ঢেউ গুনতে গুনতে কখন যেন রাখাল বাঁশিতে ফুঁ দেয়। আর সেই সুর শুনে নদীর ঢেউগুলো নাচতে থাকে। সাঁঝের বেলায় যখন সূর্য ডুবে যায় পাখিরা কিচির-মিচির শব্দে তখন নীড়ে ফিরতে দেখা যায় তাদের।
বগুড়া থেকে ৩৬ কিঃমিঃ দূরে সোনাতলা উপজেলার চেকানী চুকাইনগর যমুনার চর সরলিয়া যমুনার শাখা নদীর তীরে সোনালী আঁশ পাট, অন্যান্য ফসলাদির পাশের চরের মাঝে গরুসহ রাখালদের যেন অনন্য মিতালী। সে মিতালীর গুরুত্বপূর্ণ অনুষঙ্গ সুরেলা বাঁশির সূর।

Check Also

মানবতার সেবায় বেদেদের পাশে পরিবেশ উন্নয়ন পরিবার

ইকবাল কবির লেমনঃ বেদে সম্প্রদায়। যাদের নেই কোন স্থায়ী আবাস। রুজি রোজগারের তাগিদে বংশপরম্পরায় তারা …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

five × 2 =