সংবাদ শিরোনামঃ
প্রচ্ছদ / বগুড়ার খবর / সোনাতলায় দোকান চুরির সময় আটক চোরকে থানায় সোপর্দঃসাধারণ ধারায় মামলা সাজিয়ে জেল হাজতে প্রেরণের অভিযোগ

সোনাতলায় দোকান চুরির সময় আটক চোরকে থানায় সোপর্দঃসাধারণ ধারায় মামলা সাজিয়ে জেল হাজতে প্রেরণের অভিযোগ

আব্দুর রাজ্জাক ,স্টাফ রির্পোটারঃ বগুড়ার সোনাতলায় গভীর রাতে দোকান চুরির সময় নাইটগার্ড কর্তৃক রাব্বি নামক এক চোরকে আটক করে থানা পুলিশে সোপর্দ করা হয়েছে । এঘটনায় সোনাতলা থানা পুলিশ বাদি হয়ে একটি সাধারণ ধারায় মামলা সাজিয়ে পরেরদিন সকালে তাকে বগুড়া জেল হাজতে প্রেরন করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে।
জানা যায়, উপজেলার জোড়গাছা ইউনিয়নের সোনাকানিয়া (মধ্যপাড়া) গ্রামের মোঃ সাজু মিয়ার ছেলে রাব্বি মিয়া গত ৪’ই মে সোমবার দিবাগত রাত সারে ১২টায় চরপাড়া বাজারে ‘বৈশাখী টেলিকম’ নামের একটি দোকানে চুরি করার সময় বাজারে দায়িত্বে থাকা তিনজন নাইট গার্ড মোঃ মুকুল, মোঃ হিরু ও মোঃ সুলতান তাকে হাতেনাতে আটক করে থানা পুলিশে সোপর্দ করে।
এবিষয়ে ঐ তিনজন নাইট গার্ড যথাক্রমে- মুকুল, হিরু ও সুলতানের সাথে কথা বললে তারা সকলেই জানায়, উল্লেখিত ব্যক্তি (রাব্বি) কে বৈশাখী টেলিকম নামের ঐ দোকানের সাটারের তালা ভাংতে দেখে আমরা এগিয়ে গেলে সে পালানোর চেষ্টা করে। এসময় তাকে ধাওয়া করে একটি ধানক্ষেতের ভেতর থেকে আটক করে উক্ত ইউনিয়নের ৪ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি মোঃ আশরাফকে বিষয়টি জানাই। এরপর তিনি আমাদের সংবাদে ঘটনাস্থলে আসেন এবং চুরির চেষ্টাকারি রাব্বিকে বিভিন্ন ভাবে জিজ্ঞসার মাধ্যমে জানতে চেষ্টা করেন যে এই কাজে তার সাথে আর কে কে রয়েছে। কিন্ত সে কোন ভাবেই কারো নাম প্রকাশ করেনি, উক্ত কাজে সে একাই এসেছে বলে স্বীকার করে। এসময় তার কাছ থেকে সাটার কাটার কেচি ও তালা ভাঙ্গার সরঞ্জাম পাওয়া যায় বলেও জানান তারা। এবিষয়ে মোঃ আশরাফ’র সাথে কথা বললে তিনিও ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, উল্লেখিত সময়ে রাতে টহলধারী থানা পুলিশ ঐ পথ দিয়ে যাবার সময় তাদেরকে দলবদ্ধ অবস্থায় দেখে সেখানে দাঁড়ালে উক্ত ঘটনার বিষয়ে তাদেরকে বিস্তারিত জানিয়ে রাব্বি নামের ঐ চোরকে পুলিশের হাতে সোপর্দ করা হয়।
এদিকে পরেরদিন মঙ্গলবার সোনাতলা থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুল্লাহ আল মাসউদ চৌধুরীর সাথে কথা বললে তিনি আসামিকে আটক ও জেল হাজতে প্রেরনের বিষয়টি নিশ্চিত করেন।
থানা সুত্রে আরো জানা যায়, আসামির নামে ১৫১ ধারায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে, যেখানে উল্লেখ রয়েছে- তাকে সন্দেহ মুলকভাবে আটক করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, ওই দোকানে গত প্রায় দেড় বছর পুর্বে একবার এবং ৭/৮ মাস পুর্বে একবার অর্থাৎ দুইবারে কয়েক লক্ষাধিক টাকার মালামাল চুরি হয়েছে।

Check Also

সোনাতলার নবাগত ইউএনও সাদিয়া আফরিনকে শুভেচ্ছা জানালেন হরিখালী টেকনিক্যাল অ্যান্ড বিএম কলেজের অধ্যক্ষ

বাঙালি বার্তা ডেস্কঃ সোনাতলার নবাগত ইউএনও এবং হরিখালী টেকনিক্যাল অ্যান্ড বিএম কলেজের ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

four × 5 =