সংবাদ শিরোনামঃ
প্রচ্ছদ / বগুড়ার খবর / সোনাতলায় নির্মিত হচ্ছে মুক্তিযুদ্ধ স্মৃতি জাদুঘর ও বঙ্গবন্ধু চত্বর

সোনাতলায় নির্মিত হচ্ছে মুক্তিযুদ্ধ স্মৃতি জাদুঘর ও বঙ্গবন্ধু চত্বর

ইকবাল কবির লেমনঃ মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনা সমুন্নত রাখতে ও নতুন প্রজন্মকে মুক্তিযুদ্ধ সম্বন্ধে জানাতে বগুড়া’র সোনাতলায় নির্মিত হচ্ছে মুক্তিযুদ্ধ স্মৃতি জাদুঘর ও বঙ্গবন্ধু চত্বর। সোনাতলা উপজেলার পৌর সদরের সোনাতলা পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় সংলগ্ন স্থানে ও বালুয়াহাট ইউনিয়নের ক্ষেত্রসার দিঘী সংলগ্ন স্থানে এ প্রকল্প তিনটি বাস্তবায়িত হচ্ছে। প্রতিটি ৩৩ লাখ টাকা ব্যয়ে নির্মিতব্য মুক্তিযুদ্ধের জাদুঘরে বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালসহ বাংলাদেশের মহান মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস ও স্মৃতি স্থান পাবে। স্থানীয় সরকার প্রকৌশল বিভাগের তত্বাবধানে দু’টি মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘরের কাজ সমানতালে এগিয়ে চলেছে। ইতোমধ্যেই যাদুঘর দু’টির ৫০ শতাংশ কাজ সম্পন্ন হয়েছে। একই সঙ্গে ১ লাখ ৭৫ হাজার টাকা ব্যয়ে সোনাতলা পৌর সদরের মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘর সংলগ্ন স্থানে ( সোনাতলা পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে) নির্মিত হচ্ছে উন্মুক্ত মঞ্চ,শিশুদের খেলাধুলার উপকরণ ও মাঠসমৃদ্ধ বঙ্গবন্ধু চত্বর।
বগুড়া-১ আসনের প্রয়াত কর্মবীর সংসদ সদস্য আব্দুল মান্নানের স্বপ্ন ‘মুক্তিযুদ্ধ স্মৃতি জাদুঘর’ ও বঙ্গবন্ধু চত্বর বর্তমান সরকারি আর্থিক আনুকূল্যে সংসদ সদস্য সাহাদারা মান্নান এর সার্বিক তত্বাবধানে বাস্তবায়িত হচ্ছে। আর পুরো প্রক্রিয়াটি সুচারুভাবে সম্পন্নের জন্য সার্বক্ষণিক সহযোগিতা করছেন সোনাতলা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাড.মিনহাদুজ্জামান লীটন।

এ ব্যাপারে তরুণ সমাজকর্মী এমএম মেহেরুলের সাথে কথা বললে তিনি জানান, ‘মহান মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে অর্জিত হয়েছে প্রিয় বাংলাদেশ। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে অর্জিত সেই বাংলাদেশে আমরা বসবাস করছি। তাই সঙ্গত কারণে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও মুক্তিযুদ্ধ আমাদের আমাদের বিশেষভাবে আলোড়িত করে। সোনাতলায় মুক্তিযুদ্ধ স্মৃতি যাদুঘর ও বঙ্গবন্ধু চত্বর প্রজন্মকে নিশ্চয়ই বাংলাদেশ সম্পর্কে আরও জানাবে।’

সোনাতলা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাড.মিনহাদুজ্জামান লীটন জানিয়েছেন, ‘সোনাতলায় মুক্তিযুদ্ধ স্মৃতি যাদুঘর ও বঙ্গবন্ধু চত্বর নির্মাণ ছিল প্রান্তিক এ জনপদের কর্মবীর প্রিয় সংসদ সদস্য প্রয়াত জননেতা আব্দুল মান্নান এর স্বপ্ন। তাঁর এ স্বপ্নকে বাস্তবায়ন করছেন প্রয়াত সংসদ সদস্য আব্দুল মান্নান এর সহধর্মিনী, আমাদের প্রিয় আপা সাহাদারা মান্নান। আমি এ ধরণের উদ্যোগ গ্রহণের জন্য কৃতজ্ঞতা জানাই বঙ্গবন্ধুকন্যা, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে, কৃতজ্ঞতা জানাই সংশ্লিষ্ট সকলকে। এ ধরণের গুরুত্বপূর্ণ উদ্যোগ মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বাস্তবায়নের ক্ষেত্রকে আরও প্রসারিত করবে।’

Check Also

সান্তাহারে র‌্যাবের অভিযানে ১১ কেজি গাঁজাসহ গ্রেপ্তার-৫

মো: আবু বকর সিদ্দিক বক্কর,আদমদীঘি (বগুড়া) প্রতিনিধি : র‌্যাব-৫ এর একটি দল গত শনিবার রাত …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

one + three =