সংবাদ শিরোনামঃ
প্রচ্ছদ / বগুড়ার খবর / সোনাতলায় নির্যাতনের শিকার হয়ে গৃহবধূ হাসপাতালে

সোনাতলায় নির্যাতনের শিকার হয়ে গৃহবধূ হাসপাতালে

মোশাররফ হোসেন মজনু, বিশেষ প্রতিনিধিঃ সোনাতলা উপজেলার জোড়গাছা ইউনিয়নের গোসাইবাড়ী গ্রামের প্রবাসী রিপনের স্ত্রী রেশমা বেগম (৩০) শ্বশুড়, শ্বাশুড়ী, ননদ ও ননদীর নির্যাতনের শিকার হয়ে সোনাতলা্ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। ঘটনাটি ঘটেছে বৃহস্পতিবার রাতে । সরেজমিনে গিয়ে এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, প্রায় ৫ বছর আগে পাকুল্লা ইউনিয়নের শ্যামপুর গ্রামের বিশু প্রামানিকের মেয়ে রেশমার সাথে বিয়ে হয় জোড়গাছা ইউনিয়নের গোসাইবাড়ী গ্রামের গিয়াস উদ্দীন মোল্লার ছেলে রিপনের। রেশমার স্বামী রিপন মালয়েশিয়ায় কর্মরত থাকায় তাকে বিভিন্ন কারণে-অকারণে অকথ্য গালিগালাজসহ প্রায়ই শারিরীক ও মানসিক নির্যাতন চালিয়ে আসছে তার শ্বশুড় গিয়াস উদ্দীন মোল্লা, শ্বাশুড়ী সাজেদা বেগম, ননদ পোড়াপাইকড় গ্রামের আব্দুলের ছেলে কথিত দাদন ব্যবসায়ী ফিজু মিয়া ও ননদী রনি বেগম। স্বামী বিদেশ যাওয়ার পর থেকে স্ত্রী-সন্তানের ভরণ-পোষণের কোন প্রকার টাকা তার নিকট পাঠায়না বলে অভিযোগ করেছে নিগৃহিত রেশমা বেগম । তিনি আরও জানান,গত তিন-চারদিন তাকে কোন খাবার দেয়া হয়নি।এ কদিন প্রতিবেশীরা তাকে ডেকে খাওয়াতো। মোবাইল ফোনে বিষয়টি ইতিপূর্বে স্বামীকে জানালেও কোন প্রতিকার পাইনি। এ ধরণের ঘটনায় বেশ কয়েকবার বিচার-শালিশ হয়েছে। গত বৃহস্পতিবার রাতে রেশমা বেগমকে একইভাবে তারা বেদম মারপিট করে। গুরুতর আহত রেশমাকে স্থানীয় লোকজন উদ্ধার করে সোনাতলা হাসপাতালেভর্তি করে। বর্তমানে তিনি চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এলাকাবাসী রেশমার নির্যাতনকারী শ্বশুড়,শ্বাশুড়ী,ননদ ও ননদীর দৃষ্টান্তমূলক বিচার দাবী করেছে।

Check Also

লকডাউনের দ্বিতীয় দিনে সোনাতলায় ২টি হোটেলের ১ হাজার টাকা জরিমানা

আব্দুর রাজ্জাক,স্টাফ রিপোর্টারঃ বগুড়ার সোনাতলায় লক ডাউনের দ্বিতীয় দিনে উপজেলার সৈয়দ আহম্মেদ কলেজ ( বটতলা) …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

1 × 1 =