সংবাদ শিরোনামঃ
প্রচ্ছদ / বগুড়ার খবর / সোনাতলায় বসতবাড়ির সীমানা সংক্রান্ত বিরোধের জেরে মারপিট ও পুকুরে বিষ প্রয়োগ

সোনাতলায় বসতবাড়ির সীমানা সংক্রান্ত বিরোধের জেরে মারপিট ও পুকুরে বিষ প্রয়োগ

আব্দুর রাজ্জাক স্টাফ রির্পোটারঃ বগুড়ার সোনাতলা উপজেলার বালুয়া ইউনিয়নের দক্ষিন আটকড়িয়া গ্রামে বসতবাড়ির সীমানা নিয়ে সৃষ্ট বিবাদের জেরে মারপিট ও পুকুরে বিষ প্রয়োগ করে মাছ নিধনের ঘটনা ঘটেছে। মারপিটে কলেজ পড়ুয়া ছাত্রী ও ষাট বছরের বৃদ্ধ আহত হয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছে। পুকুরে বিষ দেওয়ায় প্রায় লক্ষাধিক টাকার ক্ষতিসাধিত হয়েছে। এ ব্যাপারে থানায় অভিযোগ দায়ের হয়েছে। পুলিশ ঘটনাস্থন পরিদর্শন করেছে।
অভিযোগ সুত্রে জানা যায়,বালুয়া ইউনিয়নের দক্ষিন আটকড়িয়া গ্রামে মৃত কফিল উদ্দিনের ছেলে মোঃ বেলাল হোসেন এর সাথে একই গ্রামের মৃত মজিবর রহমানের বাড়ির সীমানা নিয়ে দীর্ঘদিন যাবৎ কলহ-বিবাদ চলে আসছিল। এরই জের ধরে গত বুধবার (৬ এপ্রিল) দুপুর আনুমানিক ১টায় দুলাল মিয়া তার লোকজন নিয়ে বেলাল হোসেনের বাড়ির ভিতরে ঢুকে ও তার ভাইদের উদ্দেশ্য করে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করতে থাকে। এ সময় বেলাল ও তার স্ত্রী বাড়িতে না থাকায় তাদের কলেজ পড়ুয়া মেয়ে মোছাঃ রাবেয়া সুলতানা ঘরের ভিতর থেকে এসে তার বাবা ও চাচাদের গালিগালাজ করতে নিষেধ করে। এতে তারা আরো ক্ষিপ্ত হয়ে তাদের হাতে থাকা লাঠিসো্টা ও ধারালো অস্ত্র দিয়ে বেদম মারপিট করে। রাবেয়া চিৎকার দিয়ে মাটিতে পরে যায়। রাবেয়ার চিৎকার শুনে তার বৃদ্ধ দাদী আগাইয়া আসিলে তাকেও বেদম মারপিট করে আহত করে। অভিযোগ রয়েছে তারা রাবেয়ার গলায় থাকা ৮ আনি স্বর্নের চেইন ছিড়ে নেয়। এরপর দুলাল তার লোকজন নিয়ে বেলালের শয়নঘরে প্রবেশ করে বাক্সে থাকা তার মেয়ের ও স্ত্রীর ৬ ভরি ওজনের গহনা চুরি করে নিয়ে যায়। এ ব্যাপারে বেলাল বাদী হয়ে ৬ এপ্রিল সোনাতলা থানায় ৬ জনকে আসামী করে অভিযোগ দায়ের করে। আসামীরা হলো ওই গ্রামের মৃত মজিবর রহমানের ছেলে মোঃ দুলাল মিয়া,সেকেন্দারের ছেলে মোঃ নুরুল ইসলাম বিহাজ,মোঃ ফকিরার ছেলে মোঃ উজ্জল হোসেন,মৃত সৈয়দ আলীর ছেলে মোঃ এরশাদ আলী,মোঃ রেজাউল ইসলামের ছেলে মোঃ মুসা মিয়া ও মৃত সৈয়দ আলীর ছেলে মোঃ রেজাউল ইসলাম।
অপর দিকে বিষ প্রয়োগকৃত পুকুরের মালিক বেলালের ভাই রুবেল ও সুজন জানায়,বুধবারের মারপিটের ঘটনায় থানায় অভিযোগ করায় বিবাদীরা ক্ষিপ্ত হয়ে ওইদিন রাতের আঁধারে আমাদের পুকুরে বিষ প্রয়োগ করেছে। এতে আমাদের প্রায় লক্ষাধিক টাকার মাছ মারা গেছে। এ ব্যাপারে সোনাতলা থানা অফিসার ইনচার্জ আব্দুল্লাহ আল মাসউদ চৌধুরী জানান,মারামারির ঘটনায় থানায় অভিযোগ হয়েছে। তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Check Also

বগুড়ায় বাসদ( মার্কসবাদী) অফিসে হামলাকারীদের গ্রেফতার ও ৫ দফা বাস্তায়ন না করলে ৭ ফেব্রুয়ারী ধর্মঘট- সংগ্রাম পরিষদ

খবর বিজ্ঞপ্তিঃ হামলাকরী সন্ত্রাসীদের অবিলম্বে গ্রেফতার এবং সংগ্রাম পরিষদের ৫ দফা দাবি ২৮ জানুয়ারির মধ্যে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

fifteen − fourteen =