সংবাদ শিরোনামঃ
প্রচ্ছদ / বগুড়ার খবর / সোনাতলায় মধুপুর ইউপি চেয়ারম্যান অসীম কুমার জৈন’র সংবাদ সম্মেলন

সোনাতলায় মধুপুর ইউপি চেয়ারম্যান অসীম কুমার জৈন’র সংবাদ সম্মেলন

আব্দুর রাজ্জাক, বাঙালি বার্তাঃ শুক্রবার বিকেলে সোনাতলা প্রেসক্লাবের অস্থায়ী কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করেছেন উপজেলার মধুপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান অসীম কুমার জৈন নতুন। তিনি তার লিখিত বক্তব্যে বলেন, গত ৯ এপ্রিল মধুপুর ইউনিয়নের দড়িহাঁসরাজ গ্রামের মৃত অফিজ উদ্দিনের ছেলে মোঃ মিঠু মন্ডলের বাড়ি থেকে সোনাতলা থানা পুলিশ কর্তৃক সরকার প্রদত্ব ৩০কেজি ওজনের ৫০ বস্তা চাল উদ্ধার ও তাকে গ্রেফতারের ঘটনায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এবং টেলিভিশনে আমাকে জড়িয়ে যে তথ্য পরিবেশিত হয়েছে তা সম্পূর্ণ মিথ্যা, বানোয়াট ও ভিত্তিহীন। মিঠু মন্ডলের সাথে আমার, পরিবারের বা ইউনিয়ন পরিষদের কোন সম্পর্ক নেই। তার সাথে আমার দল বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ বা তার অংগ-সহযোগী সংগঠনের কোন সম্পর্ক নেই। আমি সরকারি ত্রাণ যথাযথভাবে সরকারি প্রতিনিধির উপস্থিতিতে সঠিক নিয়ম মেনে সকলের সামনে বিতরণ করি। আমি কোন দুর্নীতি ও অনিয়মকে কখনও প্রশ্রয় দেইনা, অতীত থেকে বর্তমান পর্যন্ত কোন অনিয়মের সাথে জড়িত ছিলাম না, ভবিষ্যতেও থাকবো না । আমার ইউনিয়নের ৩৮৮ জন ভিজিডি সুবিধাভোগীর প্রত্যেকেই ৩০ কেজি করে চাল পায় যা ইউনিয়ন পরিষদের মাধ্যমে বিতরণ করা হয়। সর্বশেষ বিতরণ করা হয়েছে গত ০৭ এপ্রিল তারিখে। ওজন কম দেয়া ঠেকাতে সরকার ৩ কেজির ইনটেক বস্তার ব্যবস্থা করেছেন। সুতরাং আমরা সেভাবে সবাইকে ৩০কেজির ইনটেক বস্তা বিতরণ করে থাকি। আমাদের বিতরণ নিয়ে কখনও কোন প্রশ্ন উত্থাপিত হয়নি। খাদ্যবান্ধব কর্মসূচীর আওতায় মধুপুর ইউনিয়নে ১ হাজার ৭০ জন সুবিধাভোগীর মাঝে ১০ টাকা দরে ৩০কেজি করে ইনটেক বস্তায় মাসে একবার করে বছরে ৫ মাস চাল প্রদান করা হয়। এক্ষেত্রে মধুপুর ইউনিয়নের দুইজন ডিলার সরকারিভাবে নিয়োগপ্রাপ্ত রয়েছেন। তারা হলেন হরিখালী বাজারে ঈশ্বর চন্দ্র জৈন ও মধুপুর বাজারে হুমায়ন সবীর সাবু। ভিজিডির মতো এই কর্মসূচীর আওতায় সুবিধাভোগীরা প্রত্যেকে ইনটেক বস্তায় ৩০ কেজি করে চাল ক্রয় করেন। ডিলাররা সরবরাহকৃত বস্তায় সুবিধাভোগীদের মাঝে ওই চাল বিক্রয় করেন।
সারা বিশ্বের ন্যায় বাংলাদেশে করোনা ভাইরাস প্রাদুর্ভাব হওয়ায় বাংলাদেশ সরকারের ত্রাণ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রনালয়ের পক্ষ থেকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে গত ৩০মার্চ প্রথম পর্যায়ের ২০০শ সুবিধাভোগীর মাঝে ১০ কেজি করে চাল এক প্যাকেট বিস্কুট, ৬ এপ্রিল দ্বিতীয় দফায় ২০০’শ সুবিধাভোগীর মাঝে ১০ কেজি করে চাল, ১কেজি আলু ও ১কেজি করে পিয়াজ বিতরণ করা হয়। এ বিতরণ নিয়েও কোন অভিযোগ নেই।
যারা ভিজিডি, খাদ্যবান্ধব কর্মসূচী, করোনা মোকাবেলায় প্রদত্ত ত্রাণ অথবা অন্যকোন ত্রাণ সামগ্রী ক্রয়-বিক্রয় বা মজুদের সঙ্গে জড়িত তারা প্রচলিত আইন অনুযায়ী যথাযথ শাস্তি পাক ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হিসাবে এটিই আমার কাম্য। সেইসাথে যারা সরকার ও ক্ষমতাসীন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সুনাম ক্ষুন্নের মতো অপচেষ্টায় লিপ্ত , যারা আমার সুনাম ক্ষুণœ করার জন্য চালসহ আটক হওয়া মিঠুর সাথে আমাকে জড়িয়ে উদ্দেশ্যমূলক অপপ্রচার চালাচ্ছে আমি তাদের এমনসব অপচেষ্টার তীব্র নিন্দা, ঘৃণা ও প্রতিবাদ জানাই। সেই সাথে প্রকৃত অপরাধী ও অপপ্রচারকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করছি।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন, বগুড়া জেলা কৃষকলীগের সভাপতি আলমঙ্গীর বাদশা, সাধারণ সম্পাদক মুঞ্জুরুল আলম মুঞ্জু , উপজেলা কৃষকলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক আবু লায়েছ নাহিদ, মধুপুর ইউনিয়ন কৃষকলীগের আহ্বায়ক শাহিদুল ইসলাম সুরুজ, মধুপুর ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য ইছাহাক মন্ডল, মহিলা সদস্য তাপসী বেগম, বেবী খাতুন, মধুপুর ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি জুলফিকার আলী জুয়েল ও সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন রাজু।

Check Also

চাঁদনিয়া -শিবগঞ্জ-বালুপাড়া একমাত্র চলাচলের রাস্তা সংস্কার না করায় স্থানীয়রা বিপাকে

কামরুল হাসান শিবগঞ্জ (বগুড়া) প্রতিনিধিঃ বগুড়ার শিবগঞ্জ চাঁদনিয়া বালুপাড়ার একমাত্র চলাচলের রাস্তা দির্ঘদিন ধরে সংস্কার …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

six + 13 =