সংবাদ শিরোনামঃ
প্রচ্ছদ / বগুড়ার খবর / সোনাতলায় সীমানার গাছকাটাকে কেন্দ্র করে মারপিটঃ থানায় অভিযোগ

সোনাতলায় সীমানার গাছকাটাকে কেন্দ্র করে মারপিটঃ থানায় অভিযোগ

আব্দুর রাজ্জাক, স্টাফ রিপোর্টারঃ বগুড়ার সোনাতলায় প্রাচীর নির্মাণে সীমানার গাছকাটাকে কেন্দ্র করে উভয় পক্ষের মারপিটে ৬জন আহত থানায় অভিযোগ। ঘটনাটি ঘটেছে ২৩ আগষ্ট সোমবার দুপুরে উপজেলার সদর ইউনিয়নের দক্ষিন রানীরপাড়া গ্রামে। আহতরা হলেন, দক্ষিণ রানীরপাড়া গ্রামের পুলিশ সদস‍্য শফিকুল ইসলামের ছেলে আল-আমিন ইসলাম রাজু, স্ত্রী আমেনা বেগম, ছেলে বউ অন‍্যন‍্যা বেগম, অপর পক্ষের একই এলাকার মৃত সামাদ মন্ডলের ছেলে হবিবর রহমান মুংলু, মুংলুর স্ত্রী মুন্নি বেগম ও আব্দুস সামাদের মেয়ে বেলী বেগম। এদের মধ‍্যে আল আমিন ইসলাম রাজুর সোনাতলা স্বাস্থ‍্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছে এবং বেলী বেগম একই হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছে। বাকীরা প্রাথমিক চিকিৎসা গ্রহন করেছে। এঘটনায় উভয় পক্ষই থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে। অভিযোগ সুত্রে ও সরেজমিনে জানা যায় হবিবর রহমান মুংলু ও শফিকুল ইসলামের বাড়ির সীমানা নিয়ে দীর্ঘদিন থেকে বিরোধ চলে আসছে। এক পর্যায় ক্রমে বাড়ার সীমানা একাধিক বার মাপযোগ করা হয়েছে। ২২ আগষ্ট আবারও স্থানীয় গনমামান‍্য ব‍্যাক্তিবর্গের উপস্থিতিতে সার্ভেয়ার দ্বারা সীমানার জায়গাটি মাপযোগ করে সীমানা নির্ধারণ করেছে। ২৩ আগষ্ট দুপুরে শফিকুল ইসলাম তার সীমানা দিয়ে প্রাচীর নির্মাণ করতে মুংলুর লাগানো তিনটি আমগাছ বেজে যায়। আমগাছ তিনটি মুংলুকে কেটে নিতে বলে। মুংলু আমগাছ কাটতে সময় ক্ষেপন করলে সেই আমগাছ তিনটি শফিকুলের ছোট ভাই ছবেদ আলী গাছগুলো কর্তন করে। আমগাছগুলো কাটতে মুংলু নিষেধ করলে উভয় পক্ষের মধ‍্যে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে মারপিটের ঘটনা ঘটে। এতে উভয় পক্ষের ৬ জন আহত হয়। আল আমিন ইসলাম রাজু গুরুতর আহত হলে তাকে স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করে দেন।
এ ঘটনায় থানা অফিসার ইনচার্জ রেজাউল করিম রেজা উভয় পক্ষের দু’টি অভিযোগের বিষয় নিশ্চিত করে বলেন, ‘তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব‍্যবস্থা গ্রহন করা হবে।’

Check Also

সারিয়াকান্দির নয়া ইউএনও’র সাথে শুভেচ্ছা বিনিময়

বগুড়ায় সারিয়াকান্দি উপজেলার নবাগত নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ রেজাউল করিমের সাথে শুভেচ্ছা বিনিময় করেছেন আমরা মুক্তিযোদ্ধার …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

fourteen + 10 =